রোববার   ০৫ এপ্রিল ২০২০   চৈত্র ২২ ১৪২৬   ১১ শা'বান ১৪৪১

করোনা ভাইরাসে আতঙ্কিত হবো না, সচেতন হতে হবে : আনোয়ার

প্রকাশিত: ১৯ মার্চ ২০২০  

স্টাফ রিপোর্টার : নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন বলেছেন, দেশে করোনা ভাইরাসে আঘাত হেনেছে। এই ভাইরাসের ভ্যাকসিন সৃষ্টি হয় নাই। প্রবাসী অনেক লোক দেশে এসে আত্মীয় স্বজনদের সাথে বসবাস করছে। ফলে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। 

আমরা চেষ্টা করবো যারা প্রবাস থেকে এসেছে তাদের সাথে মেলামেশা কম করতে এবং কোয়ারেইনটানে করতে। ইতোমধ্যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে। হয়তো আন্ত:জেলা বাসগুলোও বন্ধ রাখা হতে পারে। 

আমরা বিভিন্ন সচেতনতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। আমরা আড্ডা গল্প গুজব থেকে বিরত থাকবো। বাতাসে ভাইরাস ছড়িয়ে থাকে।

তিনি আরও বলেন, দিনে ৫ থেকে ৬ বার সাবান দিয়ে হাত ধৌত করবো। অতিরিক্ত পানি খাইতে হবে। যাতে করে করে করোনা ভাইরাস আক্রমন করতে না পারে। আমরা মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনকে ভয় করি। আল্লাহর হুকুম ছাড়া করোনা ভাইরাস আক্রমন করতে পারবে না। 

আমরা পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়লে পাঁচ বার অযু করলে করোনা ভাইসার হবে না। আমরা নামাজ পড়বো, দোয়া করবো, করোনা ভাইরাসের হাত থেকে আল্লাহ যেন আমাদের রক্ষা করেন। করোনা ভাইরাসে আতঙ্কিত হবো না। সচেতন হতে হবে। আমরা আতঙ্কিত না হয়ে এলাকার জনসাধারণের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি করবো।


১৯ মার্চ বৃহস্পতিবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 


জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ২নং রেলগেইট এলাকার আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এই আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। আলোচনা সভা শেষে কেক কাটা হয়।

এ সময় আনোয়ার হোসেন আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ স্বাধীন হতো না। আমি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হতে পারতাম না। আমাদের এমপি ডিসি এসপি হতে পারতেন না। এজন্য জাতির পিতার প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে দেশ ও দেশের বিভিন্ন জায়গায় নানা কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছিল। কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারণে অনেক কর্মসূচি সংক্ষিপ্ত করা হয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি শেখ হায়দার আলী পুতুল, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব, জিএম আরমান, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাহমুদা মালা, জিএম আরাফাত, প্রচার সম্পাদক অ্যাডভোকেট হাবিব আল মুজাহিদ পলু, স্বস্থ বিষয়ক সম্পাদক ডা. আতিকুজ্জামান সোহেল, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রশিদ, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক আক্তারুজ্জামান, দপ্তর সম্পাদক অ্যাডভোকেট বিদ্যুৎ কুমার সাহা, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, বন্দর থানা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আবেদ হোসেন ও সদস্য মনিরুজ্জামান মনির।


 

এই বিভাগের আরো খবর