সোমবার   ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ১ ১৪২৬   ১৬ মুহররম ১৪৪১

বুড়িগঙ্গায় উচ্ছেদ অভিযান : জব্দ বালু ৫ লাখ ৭৩ হাজার টাকায় বিক্রি

প্রকাশিত: ২৭ মে ২০১৯  

ফতুল্লা (যুগের চিন্তা ২৪) : ফতুল্লায় বুড়িগঙ্গায় উচ্ছেদ অভিযানের দ্বিতীয় দিনে নদীর তীরে অবৈধভাবে গড়ে উঠা একটি তিন তলা ভবন ও দু’টি এক তলা পাকা ভবনসহ ৬০টি অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) ঢাকা নদী বন্দর। 

সোমবার (২৭ মে) সকাল থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত বিআইডব্লিউটিএ-এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযানে জব্দ করা বালু ৫ লাখ ৭৩ হাজার টাকায় নিলামে বিক্রি করে দিয়েছে সংস্থাটির ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়া কেরানীগঞ্জের কান্দাপাড়া এলাকায় বুড়িগঙ্গা নদীর উপরে রেলওয়ের সেতু নির্মাণ কাজ বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।   

অভিযানে উপস্থিত ছিলেন বিআইডব্লিউটিএ-এর  যুগ্ম-পরিচালক সাইফুল হক, উপ-পরিচালক মিজানুর রহমান, সহকারী পরিচালক রেজাউল করিম রেজা, নূর হোসেন, উপ-সহকারী প্রকৌশলী আজিজুর রহমান প্রমুখ।

বিআইডব্লিউটিএ ঢাকা নদী বন্দরের সহকারী পরিচালক রেজাউল করিম রেজা জানান, ফতুল্লা লঞ্চঘাট থেকে দাপা পর্যন্ত নদীর তীরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে। 

এ সময় একটি তিনতলা ভবন, দুটি একতলা ভবন, ১৫টি আধা পাকা ভবন, ৩৯টি টিনশেড ঘর, তিনটি বাউন্ডারি দেয়ালসহ সর্বমোট ৬০টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। 

এছাড়া এক একর জমি অবমুক্ত করা হয়েছে। অভিযানে জব্দ করা বালু ৫ লাখ ৭৩ হাজার টাকায় নিলামে বিক্রি করা হয়েছে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাফিজুর জানান, নদীর নির্ধারিত সীমানার অভ্যন্তরে যারা অবৈধভাবে নদী দখল করেছে, উচ্চ আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে বুড়িগঙ্গার তীরে সব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে।

এর আগে অভিযানের প্রথম দিন রোববার (২৬ মে) ফতুল্লার বালুর ঘাট থেকে খেয়াঘাট পর্যন্ত অর্ধশতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে বিআইডব্লিউটিএ কর্তৃপক্ষ। এ সময় জব্দ করা বালু ১০ লাখ ৩২ হাজার টাকায় নিলামে বিক্রি করা হয়।
 

এই বিভাগের আরো খবর