বৃহস্পতিবার   ০২ এপ্রিল ২০২০   চৈত্র ১৯ ১৪২৬   ০৮ শা'বান ১৪৪১

২২ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে ‘এসএমই আঞ্চলিক পণ্য মেলা’

প্রকাশিত: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

যুগের চিন্তা রিপোর্ট : আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের পরদিন থেকে (২২ ফেব্রুয়ারি) নারায়ণগঞ্জের ওসমানি পৌর স্টেডিয়ামে শুরু হচ্ছে সাতদিনব্যাপী ‘এসএমই আঞ্চলিক পণ্য মেলা’। বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলনকক্ষে সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন। তিনি জানান, ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হয়ে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এই মেলা চলবে। 


জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন বলেন, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনে ক্ষুদ্র ও মাঝারী শিল্প  প্রতিষ্ঠান এসএমই গুরুপূর্ণ অবদান রেখে চলেছে। নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসন, বিসিক, চেম্বার, নাসিব ব্যবসায়িক প্রতিনিধি সকল স্টোক হোল্ডারদের সম্পৃক্ত করে তাদের সহযোগীতায় এসএমই ফাউন্ডেশন নারায়ণগঞ্জ জেলায় ৭ দিন আঞ্চলিক পণ্য মেলা অনুষ্ঠিত হবে।

 

মেলায় ৫০ টি স্টল নির্মাণ করা হচ্ছে। ৫০টি স্টলে মাইক্রো, ক্ষুদ্র ও মাঝারী শিল্প উদ্যোক্তাগণকে বরাদ্দ দিয়ে তাদের উৎপাদিত পণ্যে প্রদর্শন, বিপন ও পারস্পরিক মতবিনিময় করার সুযোগ পাবে। 


জেলা প্রশাসক জানান, মেলার স্টল বরাদ্দের ক্ষেত্রে নারায়ণগঞ্জ জেলার উদ্যোক্তাগণকে  বরাদ্দ ফি নির্ধারণ করা হয়েছে মাত্র ২০০০ টাকা । স্টল বরাদ্দের ক্ষেত্রে নারায়ণগঞ্জ জেলার উদ্যোক্তাগণ অগ্রাধিকার পাবে। স্থানীয় উদ্যোক্তা যথেষ্ট না হলে দেশের অন্যান্য জেলার উদ্যোক্তাগণ স্টল বরাদ্দ নিতে পারবেন।

 

স্টলে জন্য এ যাবৎত মোট ৪৬ টি আবেদন পত্র পাওয়া গিয়েছে। এর মধ্যে নারায়ণগঞ্জ জেলার উদ্যোক্তা সংখ্যা ১৯ জন অবশিষ্ট২৭ জন দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আগত। মেলায় বিদেশী কোন পণ্য বিক্রয় ও প্রদর্শনের সুযোগ রাখা হয়নি। 


জেলা প্রশাসক বলেন, জাতীয় শিল্পনীতি ২০১৬ অনুযায়ী দেশ উৎপাদিত পণ্য অগ্রধাদিকার পাবে। অগ্রধিকার প্রাপ্ত খাত হিসাবে চিহ্নিত কৃষি/খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প এবং কৃষি যন্ত্রপাতি প্রস্তুকারী  প্রতিষ্ঠান আইসিটি/সফটওয়ার শিল্প, চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য শিল্প,লাই ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্প, পাটও পাটজাত শিল্প, প্লাষ্টিক শিল্প, হস্ত ও কারু শিল্প, জুয়েলারি (কৃত্রিম), খেলনা  এবং আগর  শিল্পের  সাথে সম্পৃক্ত এসএমই প্রতিষ্ঠান সমূহকে  মেলায় অংশ গ্রহণের ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার  প্রদান করা হচ্ছে। 


তিনি বলেন,এছাড়াওএসএমই প্রতিষ্ঠান সমূহকে মেলায় অংশগ্রহণের ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার প্রদান করা হচ্ছে। এছাড়াও এসএমই ফাউন্ডেশনের চিহ্নিত ক্লাস্টার সমূহ, তৃতীয় লিঙ্গ, অটিজম এবং উপজাতি উদ্যোক্তাদেরকে অগ্রাধিকার দেয়া হচ্ছে। 


মেলায় সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা, পয়নিস্কাশনে ব্যবস্থা, ভিজিটর বুক, লাইটিং ব্যবস্থা, বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, কীÑনোট পেপার উপস্থাপন শ্রেষ্ঠ স্টল মালিকদেকে  পুরস্কারের ব্যবস্থাসহ  অনারম্ভর উদ্বোধনী ও সমাপনী অনুষ্ঠানের ব্যবস্থা রয়েছে।
 

এই বিভাগের আরো খবর