সোমবার   ০৪ মার্চ ২০২৪   ফাল্গুন ২১ ১৪৩০

সোনারগাঁয়ে টেক্সটাইল মিলে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দগ্ধ তিন শ্রমিক

যুগের চিন্তা রিপোর্ট

প্রকাশিত: ৩০ আগস্ট ২০২৩  


সোনারগাঁয়ে একটি টেক্সটাইল মিলে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দগ্ধ হয়েছেন মো. মোস্তফা (৫০), আলআমিন (২৫) ও শাহনূর আলম (২৭) নামের তিন শ্রমিক। গতকাল মঙ্গলবার সকালে উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের রতনদী এলাকায় অবস্থিত ক্যানটাকি টেক্সটাইল মিলে এ ঘটনাটি ঘটে।

 

 

দগ্ধদের উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ণ ও প্লাষ্টিক সার্জারী ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। দগ্ধ মোস্তফা লালমনিরহাটের আব্দুস সামাদের ছেলে, আলআমিন সুনামগঞ্জের আব্দুল কাউয়ুমের ছেলে ও শাহনূর আলম আব্দুল কুদ্দুছের ছেলে জানা গেছে। তারা প্রত্যেকেই এই কারখানার লোডার হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।
 

 


ঘটনার বিবরণে জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে মিলের ভেতরে কাজ করার সময় অসাবধান বসত বিদ্যুৎতের উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন ক্যাবলে জড়িয়ে যান মো. মোস্তফা, আলআমিন ও শাহনূর আলম। এসময় তাদের শরীরের বিভিন্ন অংশ পুড়ে যায়। তাৎক্ষণিক তাদের উদ্ধার করে ঢাকা শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ণ ও প্লাষ্টিক সার্জারী ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয়। বর্তমানে তারা সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছে। দগ্ধদের মধ্যে মোস্তাফার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।
 

 


কারখানার ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী তোফায়েল আহম্মেদ বাবুল বলেন, টেক্সটাইল মিলের ছাদে প্লাস্টিকের ঝুটের বস্তা পরিস্কার সময় তাদের অসাবধানতা বশত একটি বাঁশ উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন বিদ্যুতের ক্যাবলে জড়িয়ে যায়। তারা ঢাকা শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ণ ও প্লাষ্টিক সার্জারী ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন আছেন। তাদের চিকিৎসার জন্য কারখানার পক্ষ থেকে সব ধরণের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।
 

 


ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ মো.বাচ্চু মিয়া জানান, দগ্ধ তিনজন বার্ণ ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে। এ বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানায় অবগত করা হয়েছে।
 

 


সোনারগাঁ থানার পরিদর্শক তদন্ত মোহাম্মদ আহসান উল্লাহ বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। দগ্ধদের মধ্যে একজনের অবস্থা শংকটাপন্ন বলে জানা যায়।   এন.হুসেইন রনী /জেসি

এই বিভাগের আরো খবর