মঙ্গলবার   ১২ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ২৭ ১৪২৬   ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

সমমনা’র মানববন্ধন : আবরার হত্যার সাথে ত্বকী হত্যার মিল রয়েছে

প্রকাশিত: ১৫ অক্টোবর ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) : বুয়েটের মেধাবী শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। 


মানববন্ধনে বক্তারা বলেছেন, দেশের সর্বোচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে শিক্ষার পরিবেশ না থাকায় প্রকৃত মানুষ তৈরি না হয়ে সেখানে গুণ্ডা-মাস্তান তৈরি হয়েছে। প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে টর্চার সেলের মাধ্যমে গুন্ডা বাহিনী গড়ে উঠেছে এবং সরকার তা পালন করছে।


আমরা দেখছি প্রত্যেক হত্যাকাণ্ডে পর তাদের পরিবার বা তার মা-কে এনে প্রধানমন্ত্রী সান্ত্বনা দেন এবং বলেন বিচার হবে। কিন্তু গত দশ বছরে তা হয়নি। বিচার হয়েছে আবার রাষ্ট্রপতি তাদেরকে সাধারণ ক্ষমা করে দিয়েছেন। আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ না হলে দেশকে বাঁচানো সম্ভব নয়।


আবরার কী করেছিল ? সরকার যে চুক্তি করেছে তার প্রেক্ষিতে সে তার মতামত ব্যক্ত করেছিল। এটাই তার কাল হলো, তাকে নৃসংশভাবে খুন হতে হেয়েছে। আইনকে কার্যকর করার ব্যবস্থা না থাকলে সেখারে অপরাধীর সংখ্যা বেড়ে যায়। আমরা দেখছি আমাদের দেশে বিচার হয় কারো হুকমে আবার তা বন্ধও হয় কারো হুকুমে।


সামন্য ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ার জন্য আবরারকে হত্যা করলো। প্রতিটি গ্রামে গ্রামে সরকারি দলের লোকেরা এমন করছে। আবরার হত্যার সাথে নারায়ণগঞ্জের ত্বকী হত্যার মিল রয়েছে। আমরা এ প্রতিবাদ জানাই, সব হত্যার দ্রুত বিচার চাই।


আমাদের দেশে যেসব হত্যাকাণ্ড হচ্ছে তার সবগুলোর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হয়না, বিচার হয়না। এর প্রমাণ ত্বকী হত্যা, তনু হত্যা। এরকম শত শত প্রমাণ দেয়া যাবে। আবরার হত্যা এখন একটি আন্তর্জাতিক বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে, সবাই এর প্রতিবাদ করছে। তাই আমরা আজকে এ মানববন্ধন থেকে শুধু বিচারই চাইনা; এর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও বিচার চাই।


মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) বিকাল সাড়ে ৪ টায় সামজিক সংগঠন সমমনা’র উদ্যোগে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। 


সমমনা’র সভভাপতি দুলাল সাহার সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দীন আহম্মেদের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন- গণফোরামের জেলা সভাপতি ও সংগঠনের উপদেষ্টা দেলোয়ার হোসেন চুন্নু, নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটির সভাপতি অ্যাড.এবি সিদ্দিক, নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি ভবানী শংকর রায়, সাবেক সভাপতি প্রদীপ ঘোষ বাবু, সিপিবি শহর শাখার সাধারণ সমম্পাদক সুজয় রায় চৌধুরী বিকু, বাংলাদেশ প্রগতি লেখক সংঘের জেলা সভাপতি মো. জাকির হোসেন, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের জেলা শাখার সভাপতি লক্ষ্মী চক্রবর্তী, সমমানা’র সাবেক সভাপতি রীনা আহম্মেদ এবং সাবেক সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান।
 

এই বিভাগের আরো খবর