সোমবার   ০৪ মার্চ ২০২৪   ফাল্গুন ২১ ১৪৩০

শৈত্যপ্রবাহে হাসপাতালে বেড়েছে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা

যুগের চিন্তা রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৫ জানুয়ারি ২০২৪  

 

বেশ কয়েকদিন ধরে নগরীতে ঝেঁকে বসেছে প্রচন্ড ঠান্ডা। ফলে নারায়ণগঞ্জ ভিক্টোরিয়া হাসপাতালেও দিন দিন বাড়ছে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা। প্রতিদিন জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে প্রায় অর্ধশতাধিকের বেশি রোগী ভর্তি হচ্ছেন। শিশু থেকে সব বয়সের রোগী রয়েছেন। এর মধ্যে শিশুর সংখ্যা বেশি।   

 

জানা যায়, নারায়ণগঞ্জের ১০০ শয্যা বিশিষ্ট ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। গত কয়েকদিন ধরে হাসপাতালে বেড়েই চলেছে ডায়রিয়া রোগেীর সংখ্যা। বিশেষ করে সিদ্ধিরগঞ্জ, খানপুর, দেওভোগ এলাকার বেশি রোগী ভর্তি হচ্ছে বলেন জানা হাসপাতালের ডায়রিয়া ওয়ার্ডের চিকিৎসকরা।

 

হাসপাতালের রেজিষ্টার সূত্রে জানা যায়, গতকাল দুপুর ১২ টা পর্যন্ত (১৪ই জানুয়ারি) ৬৫ জন রোগী। ১০ই জানুয়ারি ৪৩ জন রোগী, ১১ই জানুয়ারি ৫৮ জন রোগী, ১২ই জানুয়ারি ৪৭ জন রোগী, ১৩ই জানুয়ারি ৬০ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন।

 

সংশ্লিষ্টরা জানান, এ মাসে প্রথম দিকে রোগীর সংখ্যা হঠাৎ বেড়ে যায় আবার হঠাৎ কমে যায়। কিন্তু কয়েকদিন ধরে রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। প্রতিদিন প্রায় অর্ধশতর বেশি রোগী হাসপাতালে ডায়রিয়া রোগের চিকিৎসা নিতে আসে। এছাড়া জরুরি বিভাগেও বেশ রোগী আসছে কিন্তু সিরিয়াস না হলে ভর্তি করানো হচ্ছে না। সেখান থেকে চিকিৎসা ও ব্যবস্থাপত্র দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে। যাদের বেশি গুরুতর অবস্থা শুধু মাত্র তাদেরই ভর্তির জন্য হাসপাতালের ডায়রিয়া ওয়ার্ডে পাঠানো হচ্ছে।

 

ডায়রিয়া ওয়ার্ডের কর্মরত নার্সরা যুগের চিন্তাকে বলেন, আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণেও রোগী বাড়ছে আবার পানির কারণেও রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। তবে বিশেষ পানির কারণেই রোগী বাড়ছে বলে মনে হচ্ছে। কারণ এখন নগরীর অধিকাংশ এলাকাতেই পানির সমস্যা রয়েছে।   

 

নারায়ণগঞ্জ ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালের আরএমও ডা. শেখ ফরহাদ যুগের চিন্তাকে বলেন, আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। তবে বর্তমানে কমই রয়েছে। বছরের সবসময়ই ২৪ ঘন্টায় ৪০-৫০ জন রোগীর ভর্তি থাকে। অন্যান্য সময় দেখা যায় শতাধিকের বেশিও থাকে। এস.এ/জেসি          

এই বিভাগের আরো খবর