বৃহস্পতিবার   ১৪ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ৩০ ১৪২৬   ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

ভবনের একটি খুঁটির  ৪ ফিট নিচে পড়ে ছিলো শিশু ওয়াজিদের নিথর দেহ

প্রকাশিত: ৫ নভেম্বর ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) : নগরীর বাবুরাইলে চার তলা ভবন ধসের ঘটনায় ভেতরে চাপা পড়ে নিখোঁজ স্কুলছাত্র ওয়াজিদকে (১২) মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। ভবন ধসের ৪৭ ঘন্টা পর লাশটি উদ্ধার করেন দমকল বাহিনীর উদ্ধার কর্মীরা।


মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) দুপুর ২টার দিকে ওয়াজিদের মরদেহ শনাক্ত করে ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকর্মীরা । পরে  দেড় ঘন্টা প্রচেষ্টায় বিকেল সাড়ে তিনটায় ধসে যাওয়া ভবনটির নিচতলার একটি ভিমের নিচ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয় । নারায়ণগঞ্জ ফায়ার  সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ্ আল আরেফিন এ তথ্য নিশ্চিত করেন। 


উদ্ধারকর্মীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ভবনের একটি খুঁটির প্রায় ৪ ফিট নিচে ওয়াজিদের মরদেহ শনাক্ত করা হয়। পানির নিচ থেকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরির দল তার পা দুটো দেখে। তার পা দুটো বাইরে থাকলেও মাথাটি একটি খুঁটির নিচে দেবে ছিলো। 


এর আগে গত শনিবার (৩ নভেম্বর)  বিকেল সাড়ে ৪টায় ভবনটি ধসে শোয়েব (১২) নামে ষষ্ঠ শ্রেণীর এক ছাত্রের মৃত্যু হয় ও ৭ জন আহত হন। ভবনটিতে আটকে পড়া শিশু ওয়াজিদ নিহত শোয়েবের সাথেই ওই ভবনের নিচতলায় আরবি পড়তে গিয়েছিল। ইফতেখার আহমেদ ওয়াজিদ এইচএম ম্যানসন বড়বাড়ি এলাকার আব্দুল রুবেল ও কাকলী বেগমের সন্তান। সে স্থানীয় বেপারীপাড়া সানরাইজ মডেল স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র।


নারায়ণগঞ্জ ফায়ার  সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ্ আল আরেফিন জানান, নিখোঁজ শিশুটির  মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।  দুপুর ২টায় শনাক্তের পর প্রায় দেড় ঘন্টা প্রচেষ্টার পর মরদেহটি উদ্ধার করে আনা সম্ভব হয়। কেননা মরদেহটি ভবনের একেবারে নিচতলা একটি খুঁটির নিচে আটকা পড়েছিলো। আর  ভবনটি ডোবাটির প্রায় সাতফুট নিচে দেবে গিয়েছিলো। ফলে আমাদের নিচ  পর্যন্ত পৌঁছাতে সময় লেগেছে।  


তিনি আরো জানান, ওয়াজিদের মরদেহ উদ্ধারের মধ্যে দিয়ে আমাদের উদ্ধার কার্যক্রম সমাপ্ত হয়েছে।
 

এই বিভাগের আরো খবর