শুক্রবার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৪ ১৪২৬   ২০ মুহররম ১৪৪১

ব্যবসায়ী ও সংগঠক লাল মিয়ার ৩১ তম মৃত্যুবার্ষিকী বৃহস্পতিবার

প্রকাশিত: ২৫ জুলাই ২০১৮  

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি (যুগের চিন্তা ২৪) : বন্দর নগরী নারায়ণগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী ‘বণিক সমিতি’ র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও ব্যবসায়ীদের নেতা প্রয়াত এম. গোলাম হায়দার লাল মিয়া’র ৩১তম মৃত্যু বার্ষিকী বৃহস্পতিবার (২৬ জুলাই) ।

এ উপলক্ষ্যে মরহুমের পরিবারের পক্ষ থেকে নানা কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়েছে। কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে দিনব্যাপী পাবিত্র কোরআন খানি,বাদ জোহর কাঙ্গালীভোজ পরিশেষে মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনায় বিশেষ দোয়ানুষ্ঠান।

প্রসঙ্গত, প্রয়াত এম.গোলাম হায়দার লাল মিয়া নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১৭ নং ওয়ার্ড পাইক পাড়া নিবাসী মরহুম আব্দুল খালেক সরদারের জৈষ্ঠ্য পুত্র। দেশ স্বাধীনের পর ১৯৭২ সালে সে নারায়ণগঞ্জের ব্যবসার প্রাণ কেন্দ্র নিতাইগঞ্জ এলাকার বিভিন্ন সাধারণ ব্যবসায়ী ও মিল মালিকদের স্বার্থ সংরক্ষনের উদ্দেশ্যে নারায়ণগঞ্জ বণিক সমিতি নামে একটি ব্যবসায়ীকদের সংগঠন প্রতিষ্ঠিত করেন। 

তার নেতৃত্বে সরকারের নিবন্ধন প্রাপ্ত উক্ত সমিতি নারায়ণগঞ্জের ব্যবসায়ীদের কল্যাণে এবং দেশের অর্থনীতিতে ব্যাপক ভূমিকা রেখেছে। এ যাবৎকাল দেশের যতগুলো ব্যবসায়ী সংগঠন গড়ে ওঠেছে তার মধ্যে নারায়ণগঞ্জ বণিক সমিতি ছিল একটি প্রাচীন এবং দেশের তৃতীয় সমিতি।

প্রয়াত লাল মিয়া ছিলেন উক্ত সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এবং মৃত্যুর আগ মূহুর্ত পর্যন্ত সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। নারায়ণগঞ্জের ব্যবসায়ী সম্প্রদায়ের কাছে তিনি ছিলেন একজন পরম বন্ধুভাবাপন্ন এবং অভিভাবকতুল্য ব্যক্তি। তার জীবদ্দশায় সরকারের অনেক গুরুত্বপূর্ণ কর্মকান্ড তার ভূমিকা ছিল প্রশংসনীয়। 

নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স ও নারায়ণগঞ্জ ডায়াবেটিক সমিতি প্রতিষ্ঠাতায় তাঁর অনেক অবদান ছিল। এছাড়াও তিনি বিভিন্ন আর্থিক,সামাজিক, ক্রীড়া ও সেবা মূলক অসংখ্য প্রতিষ্ঠানের সাথে সম্পৃক্ত থেকে জনকল্যাণ মূলক কর্মকান্ডে তার অবদান আজো স্মরণীয় হয়ে আছে। 

তিনি বিগত ১৯৮৭ সনের ২৬ জুলাই ৬৯ বৎসর বয়সে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে পরলোকে পাড়ি জমান। মৃত্যু কালে তিনি স্ত্রীসহ ৪ পুত্র ও ৫ কন্যা এবং অসংখ্য আত্মীয় স্বজন, গুণগ্রাহী রেখে যান। বর্তমানে তার বড় ছেলে রাজধানীর স্বামীবাগ নিবাসী মোঃ আনোয়ার উল্লাহ একজন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, দুই কন্যা নাজমা রহমান (ব্যাংকার) ও সুফিয়া আহমেদ (লন্ডনের জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত চিত্রশিল্পী) উভয়ে লন্ডনের স্থায়ী বাসিন্দা।

তিনি দৈনিক জনকন্ঠ ও গ্লোব শিল্প পরিবারের প্রয়াত অর্থ পরিচালক কুতুব উদ্দিন খান জিল্লুর শ^শুর, নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রকাশিত দৈনিক খবরের পাতা পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক এবং নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি এড.মাহবুবুর রহমান মাসুম ও বন্দর থানা প্রেস ক্লাব সভাপতি ও দৈনিক বিজয় পত্রিকার সম্পাদক সাব্বির আহমেদ সেন্টুর ফুপা এবং বাংলাদেশ মানবাধিকার কাউন্সিল নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সাধারণ সম্পাদক এবং বিশিষ্ট নাট্য ও সংবাদ কর্মী এম.আর.হায়দার রানার পিতা।

মরহুমের মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে প্রতি বছরের ন্যায় খত্মে কোরানসহ তার জন্মভূমি শহরের পাইক পাড়া জামে মসজিদ ও বড় কবর স্থান, নাসিক সংলগ্ন বায়তুল ইজ্জত জামে মসজিদ, চারার গোপ মসজিদ-এ-খাজা বাবা ফরিদপুরী জামে মসজিদে বাদ আসর মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হবে।

মরহুমের পরিবারের পক্ষ থেকে সকলকে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে অংশ গ্রহনের মাধ্যমে তাঁর আত্মার মাগফেরাত কামনার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।
 

এই বিভাগের আরো খবর