সোমবার   ৩০ মার্চ ২০২০   চৈত্র ১৬ ১৪২৬   ০৫ শা'বান ১৪৪১

বিনামূল্যে ছাত্র ইউনিয়নের হ্যান্ড স্যানিটাইজার সরবরাহ 

প্রকাশিত: ২১ মার্চ ২০২০  

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি (যুগের চিন্তা ২৪) : করোনাভাইরাসে সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে আছে বাংলাদেশের শ্রমজীবী মানুষ। কিন্তু করোনায় প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যপণ্যগুলো তাদের নাগালের বাইরে। অন্যদিকে অসাধু ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেটের কারণে স্যানিটাইজার, মাস্ক বাজারে অপ্রাপ্যতা ও দুই থেকে তিনগুণ দাম বৃদ্ধি পেয়েছে।


তাই বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন সাত দশকের ঐতিহ্যের ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের শ্রমজীবী মানুষ ও সাধারণ শিক্ষার্থীদের জন্য বিনামূল্যে হ্যান্ড স্যানিটাইজার সরবরাহ করার উদ্যোগ নিয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায়  নারায়ণগঞ্জ জেলা সংসদেও ফ্রি স্যানিটাইজার প্রস্তুতি কার্যক্রম চলছে।  


শনিবার (২১ মার্চ) সংগঠনের দপ্তর সম্পাদক ওয়াকিয়া সুলতানা আঁখি কর্তৃক গণমাধ্যমে প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।


সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, স্যানিটাইজার প্রস্তুতি কাজে সহায়তা করছেন কেন্দ্রীয় কমিটির সহসাধারণ সম্পাদক সুমাইয়া সেতু, ছাত্র ইউনিয়ন জেলার সাবেক সহসভাপতি নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মাসি অনুষদের শিক্ষার্থী পার্থ প্রতীম, সাবেক স্কুল ও ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক রণদা প্রসাদ সাহা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মাসি অনুষদের শিক্ষার্থী অনামিকা মজুমদার, জেলা সংসদের সাংস্কৃতিক সম্পাদক ও ফার্মাসি বিভাগের শিক্ষার্থী ইসরাত নুহা, জেলা কমিটির কোষাধক্ষ্য পদার্থ বিজ্ঞানের শিক্ষার্থী আমিরুল ইসলাম ইমনসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। এ আয়োজনের প্রতি সংহতি জানিয়েছেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি সহ বিভিন্ন গণসংগঠন।


সংগঠনের জেলা সংসদের সভাপতি শুভ বণিক বলেন, দেশের অসাধু সিন্ডিকেটের বৃত্তে শ্রমজীবি মানুষ আজ দিশেহারা। অথচ তাঁদের এ শ্রমে ও ঘামে গড়ে তোলা সভ্যতায় সরকারসহ সমাজের বিত্ত্ববানরা কেউই পাশে দাঁড়াচ্ছে না। যে কারণে তারা করোনা ভাইরাসের উচ্চঝুঁকিতে আছেন। আমরা ছাত্র ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় সংসদসহ সারাদেশেই শ্রমজীবি ও দরিদ্র শিক্ষার্থীদের নিজস্ব স্বাস্থ্যের প্রতি সচেতনতা বৃদ্ধি ও তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সম্বলিত এ স্যানিটাইজার প্রকল্প গ্রহণ করেছি।


সাধারণ সম্পাদক ইবনে সানি বলেন, আমাদের এ প্রকল্পটি ব্যাপক ব্যয়বহুল। আমরা গণতহবিল গঠন করে প্রাথমিকভাবে উৎপাদন করছি। তবে সমাজের মানবিক মানুষরা যদি আমাদের এ মহৎ কাজে সাড়া দেয় তবে আমরা এর ব্যাপকতা বৃদ্ধি করতে সক্ষম হবো।
এ কার্যক্রমে সকলের  আার্থিক ও মানবিক সহায়তা কামনা করেছেন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। বিকাশ নম্বর ০১৯৮৯০৯৭৩৫৯, ০১৭৪২৭২৫৭৩৪।

এই বিভাগের আরো খবর