বুধবার   ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৭ ১৪২৬   ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪১

‘ফুলের রাজ্য’ সাবদীকে পর্যটন এলাকা করা হবে : সেলিম ওসমান

প্রকাশিত: ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) : সাবদীকে পর্যটন এলাকা হিসেবে গড়ে তুলতে প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে মন্তব্য করেছেন নারায়ণগঞ্জ ৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান। তিনি বলেছেন, এই এলাকার মানুষ ফুলের চাষ করে।

 

এখানে চারপাশে ফুলের ক্ষেত। অপরপাশে ব্রহ্মপুত্র নদ। এখানে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ পরিবার নিয়ে ঘুরতে আসে।  তাই এটিকে সম্পূর্ন ভাবে পর্যটন এলাকা হিসেবে গড়ে তুলতে প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আর এতে সব থেকে বেশি সহযোগীতার প্রয়োজন হবে এই এলাকার মানুষের।

 

আপনারা রাস্তার পাশে জায়গা দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করবেন না। আর যারা ফুল চাষী আছেন আপনাদের এই ফুলই হবে এই এলাকার পর্যটন কেন্দ্র এবং আপনাদের অর্থনৈতিক মুক্তি মূল ভিত্তি। 


শনিবার (৮ ফেব্রæয়ারী) বন্দর সাবদী দিঘলদী এলাকায় একটি মন্দিরের উন্নয়ন কাজের পরিদর্শনে গিয়ে এলাকাবাসীর সাথে আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।


ফুল চাষীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, প্রয়োজনে ফুল চাষের উপর আপনাদের সরকারী ভাবে প্রশিক্ষনের ব্যবস্থা করা হবে। আমি উক্ত এলাকার চেয়ারম্যান সহ উপজেলা কর্মকর্তাদের অনুরোধ করছি খুব দ্রæত এই এলাকার সকল চাষীদের উৎপাদিত ফুল দিয়ে এখানে যেন বড় পরিসরে একটি ফুল মেলার আয়োজন করা হয়।

 

প্রয়োজনে আপনারা জেলা প্রশাসকের সহযোগীতা নিবেন। এতে করে সারা দেশের মানুষ জানতে পারবে এখানে দেশী বিদেশী সকল ধরনের ফুলের চাষ হয়ে থাকে। মূলত এই বন্দর এলাকাতেই ফুলে চাষ শুরু হয়। আমাদের দেখে যশোরে ফুলের চাষ শুরু করেছে। কিন্তু যশোরের ফুল চাষীরা অনেক এগিয়ে গিয়েছে। আমাদের বন্দরের ফুল চাষীদেরকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।

 

এ সময় বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি দিপক কুমার সাহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, এফবিসিসি আই এর পরিচালক প্রবীর কুমার সাহা, মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা, বন্দর উপজেলার চেয়ারম্যান এম.এ রশিদ, জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক আবুল জাহের, বন্দর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান সানাউল্লাহ সানু, নারী ভাইস চেয়ারম্যান ছালিমা ইসলাম শান্তা, কলাগাছিয়া ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সভাপতি বাচ্চু মিয়া, কলাগাছিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন প্রধান, মুছাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাকসুদ হোসেন, বন্দর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ ও গন্যামান্য ব্যক্তিরা।
 

এই বিভাগের আরো খবর