বুধবার   ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   ফাল্গুন ৮ ১৪৩০

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে অবসরের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার তামিমের

যুগের চিন্তা রিপোর্ট

প্রকাশিত: ৮ জুলাই ২০২৩  


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতের পরে অবসরের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করেছেন তামিম ইকবাল। তবে আপাতত থাকবেন দেড় মাসের বিশ্রামে। এশিয়া কাপে তিনি ফিরবেন বলে আশা প্রকাশ করেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। চট্টগ্রামে সংবাদ সম্মেলন ডেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে আচমকা অবসরের ঘোষণা দিয়েছিলেন তামিম ইকবাল।

 

 

চট্টগ্রাম থেকে আজ ঢাকায় ফেরা তামিমকে গণভবনে ডেকেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ দুপুরে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক ও সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মুর্তজাকে সঙ্গে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে গণভবনে যান তামিম ইকবাল। সেখানে তামিমের সঙ্গে ছিলেন তাঁর স্ত্রী আয়েশা ইকবাল এবং বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান।

 


প্রায় তিন ঘণ্টা পর প্রধানমন্ত্রীর বাসা থেকে বের হওয়ার পর সংবাদমাধ্যমকে তামিম অবসরের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করা প্রসঙ্গে বলেছেন, ‘আজ দুপুরবেলায় আমাকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তাঁর বাসায় দাওয়াত করেছিলেন। ওনার সঙ্গে অনেকক্ষণ আমরা আলোচনা করেছি। উনি আমাকে নির্দেশ দিয়েছেন খেলায় ফিরে আসতে।

 

 

আমি আমার অবসর এই মুহ‚র্তে তুলে নিচ্ছি। কারণ, আমি সবাইকে না বলতে পারি, কিন্তু দেশের যে সবচেয়ে বড় ব্যক্তি, তাঁকে না বলা আমার পক্ষে অসম্ভব। তাতে অবশ্যই পাপন (নাজমুল হাসান) ভাই ও মাশরাফি ভাইয়ের বড় ভ‚মিকা ছিল। মাশরাফি ভাই আমাকে ডেকে নিয়েছেন।

 

 

পাপন ভাই সাথে ছিলেন। প্রধানমন্ত্রী আমাকে দেড় মাসের জন্য একটা ছুটিও দিয়েছেন। আমি যেন মানসিকভাবে আরেকটু ফ্রি হতে পারি।’ তামিম অবসর ভেঙে ফেরার সিদ্ধান্ত জানানোর পর বলেন, ‘এরপর পাপন ভাই কথা বলবেন।’

 


বিসিবি সভাপতি নাজমুল পাশেই দাঁড়িয়ে ছিলেন। সংবাদকর্মীদের তিনি বলেছেন, ‘আমার একটা ধারণা হয়েছিল ওর (তামিমের) প্রেস কনফারেন্সটা দেখে, হয়তো আবেগ থেকে সিদ্ধান্তটা নিয়েছে। আমার একটা বিশ্বাস ছিল, ওর সঙ্গে যদি সামনাসামনি একবার বসতে পারি, তাহলে হয়তো এটার একটা সমাধান পাব।

 

 

আজকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মাধ্যমে আমরা সবাই ওর সঙ্গে বসেছিলাম এবং ও আপনাদের সামনেই বলে গেল, সে যে অবসরের চিঠিটা দিয়েছে, সেটা সে প্রত্যাহার করছে। সে অবসর নেয় নাই।’

 


বিসিবি সভাপতি এই কথা বলার পরই সংবাদকর্মীদের একজন প্রশ্ন করেন, পাপন ভাই অবসরের চিঠি কি দিয়েছিল? বিসিবি সভাপতি উত্তর দেন, ‘আজকে একটা এসেছে।’ এরপর বিসিবি সভাপতি বলেছেন, ‘যেহেতু সে শারীরিক ও মানসিকভাবে এখনো ফিট না, সে জন্য সে দেড় মাস সময় নিয়েছে। এই দেড় মাসে সে পুনর্বাসন করে আশা করছি সে শিগগিরই আমাদের ক্রিকেটে ফিরে আসবে।’

 


তামিমের অবসর ভেঙে ফেরা কতট স্বস্তির, এমন এক প্রশ্নের জবাবে নাজমুল বলেছেন, ‘অবশ্যই। এটা সবার জন্যই স্বস্তির। আমাদের অধিনায়কই যদি না থাকে, আমরা খেলব কীভাবে!’

 


দেড় মাস পর এশিয়া কাপে তামিম অধিনায়ক হিসেবেই ফিরবেন কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে নাজমুল বলেন, ‘ইনশআল্লাহ।’

 


আগামী ৩১ আগস্ট শুরু হবে এশিয়া কাপ। তবে দেড় মাসের ছুটিতে থাকা মানে তামিম আফগানিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের পরের দুই ম্যাচ খেলবেন না। এরই মধ্যে তামিমের জায়গায় লিটন দাসকে অধিনায়ক করার ঘোষণা দিয়েছে বিসিবি। তামিমের বদলে দলে ডাকা হয়েছে রনি তালুকদারকেও।  এন.হুসেইন রনী /জেসি

এই বিভাগের আরো খবর