বৃহস্পতিবার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৪ ১৪২৬   ১৯ মুহররম ১৪৪১

নির্মাণাধীন ভবনের মালিকের কাছে চাঁদা দাবি, গ্রেফতার

প্রকাশিত: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

সিদ্ধিরগঞ্জ (যুগের চিন্তা ২৪) : সিদ্ধিরগঞ্জে নির্মাণাধীন ৬তলা পাকা ভবনের মালিকের কাছে চাঁদা দাবি করায় জাহাঙ্গীর মোল্লা সারজাহান (৫৫) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

 

গ্রেফতারকৃত আসামী মাদারীপুরের শিবচর থানাধীন হাওলাদারকান্দি (দক্ষিণ চর জানাজাত) গ্রামের মৃত কাশেম মোল্লার ছেলে।  বর্তমানে তিনি পরিবারসহ সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন আটি হাউজিং এলাকার জহুরা ভিলায় বসবাস করে আসছে। 


এর আগে গত মঙ্গলবার (৯ সেপ্টেম্বর) ভবনের মালিক আব্দুর রহমান ৩ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ৩/৪ জনকে আসামী করে থানায় মামলা (মামলা নং-২৫) দায়ের করেন।

 

মামলার বাকী আসামীরা হল- গ্রেফতারকৃত আসামী জাহাঙ্গীর মোল্লার ছেলে বিল্লাল (২২) এবং আটি হাউজিং এলাকার মোর্শেদ আলমের বাড়ীর ভাড়াটিয়া ও হারুনের ছেলে সিয়াম (২২) সহ অজ্ঞাত আরো ৩/৪ জন।

 

মামলা সূত্রে জানা যায়, আব্দুর রহমানের ক্রয়কৃত জমিতে বাড়ী নির্মাণ কাজ চলাকালীন গত ২৮ আগষ্ট বিকেলে নির্মাণকাজে বাধা প্রদান করে বিবাদীপক্ষ। কাজ বন্ধের কারণ জানতে চাইলে বাদী পক্ষের কাছে বিশ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে তারা। 

 

চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে আব্দুর রহমানকে বিবাদীপক্ষ মারধর করে এবং জীবন নাশের হুমকি দেয়। পরে আশে-পাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে।

 

ভূক্তভোগী আব্দুর রহমান বলেন, আমি জাহাঙ্গীর মোল্লার কাছ থেকে জমি ক্রয় করে বাড়ী নির্মাণের কাজ শুরু করেছি। এরপর সে সহ সিয়াম, তার ছেলে বিল্লাল ও আরো ৩/৪ জন মিলে আমার বাড়ীর নির্মাণ কাজে বাধা প্রদান করে আমার কাছ থেকে বিশ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না দিলে আমাকে সে প্রাণে মেরে ফেলবে বলে হুমকি প্রদান করেছে।

 

এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ আজিজুল হক জানান, চাঁদা দাবিকারীদের বিরুদ্ধে ভূক্তভোগী মামলা দায়ের করেছে। মামলার প্রধান আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
 

এই বিভাগের আরো খবর