বুধবার   ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   ফাল্গুন ৮ ১৪৩০

‘নারায়ণগঞ্জে বেশিরভাগ শিল্পকারখানায় ইটিপি ব্যবহার করে না’

যুগের চিন্তা অনলাইন

প্রকাশিত: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১  

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের সহকারী কমিশনার ভূমি (এসিল্যান্ড) রুবাইয়া খানম বলেছেন, নারায়ণগঞ্জ শিল্প এলাকা হিসেবে বেশিরভাগ কারখানাতে এফ্লুয়েন্ট ট্রিটমেন্ট প্লান্ট বা ইটিপি আছে। কিন্তু, বেশিরভাগ শিল্পকারখানা ইটিপি ব্যবহার করে না।

 

রোববার (২৬ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে ৫টায় শহরের বিআইডব্লিউটিএ নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের ভিআইপি লাউঞ্জে বিশ্ব নদী দিবস ২০২১ উপলক্ষ্যে আয়োজিত সেমিনারে এ কথা বলেন তিনি।

 

এসিল্যান্ড রুবাইয়া খানম বলেন, 'তারা ইটিপি বন্ধ করে রাখে। আমরা কিংবা বিআইডব্লিউটিএ যখন পরিদর্শনে যাই তখন মালিকপক্ষ ইটিপি চালু করে। বর্তমানে নদী দূষণ মারাত্মক পর্যায়ে গেছে। নদীকে বাঁচাতে হলে সচেতনতার কোনো বিকল্প নেই। আমাদের সবার মন থেকে নদীকে বাঁচাতে এগিয়ে আসতে হবে।'

 

এ ছাড়াও তিনি বলেন, 'নদীতে কেউ যদি কোনো বর্জ্য ফেলে সেটা সরকারের কোনো সংস্থার একার পক্ষে পর্যবেক্ষণ করা সম্ভব না। একা বিআইডব্লিউটিএ কিংবা নৌ পুলিশের পক্ষে এটা পর্যবেক্ষণ করা সম্ভব না। আমি আশা করব, নদী রক্ষায় বিআইডব্লিউটিএ যুগান্তকারী উদ্যোগ নেবে, যেন হাইকোর্ট তার জাজমেন্টে নারায়ণগঞ্জের উদহারণ টানে।'

 

বিআইডব্লিউটিএ নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের যুগ্ম পরিচালক শেখ মাসুদ কামাল বলেন, 'হাইকোর্টের নির্দেশে শীতলক্ষ্যায় ২ হাজার ৪০০টি সীমানা পিলার স্থাপনের কার্যক্রম চলমান আছে। ইতোমধ্যে অনেক সীমানা পিলার স্থাপন করা হয়েছে। আমরা যেহেতু আগে সীমানা পিলার স্থাপন করতে পারিনি তাই মামলা দেইনি। তবে, আমরা সম্প্রতি রূপগঞ্জে এক দখলদারের বিরুদ্ধে মামলা করেছি। ভবিষ্যতেও দখলদারদের বিরুদ্ধে আমরা মামলা করব।'

এই বিভাগের আরো খবর