বুধবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ২ ১৪২৬   ১৮ মুহররম ১৪৪১

নারায়ণগঞ্জে অজ্ঞাত লাশের ছড়াছড়ি, মিলছে না পরিচয়

প্রকাশিত: ১ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) : নারায়ণগঞ্জে অজ্ঞাত লাশের ছড়াছড়ি, মামলা হলেও বেশির ভাগেরই মিলছে না পরিচয়। ডাম্পিং জোন হিসেবে স্বীকৃত নারায়ণগঞ্জকে বেছে নিয়ে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা অন্যত্র খুন করে লাশ ফেলে যাচ্ছে এখানে। ফলে উদ্ধারকৃত লাশের পরিচয় শনাক্তের জন্য হয়রানীর শিকার হতে হয় নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ প্রশাসনকে। বিগত দিনে উদ্ধারকৃত কয়েকটি বিকৃত, অর্ধগলিত লাশের পরিচয় শনাক্তে হিমশিম খেতে হচ্ছে বলেও জানিয়েছে নারায়ণগঞ্জ সিআইডি কর্তৃপক্ষ।


নারায়ণগঞ্জ সিআইডি সূত্রে জানা যায়, গত বছরের ১৯ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ৯টায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন নয়াআটি মুক্তিনগর কিসমত মার্কেটের সামনে ডিএনডি খালের পশ্চিম পার্শ্বে খালের পানিতে ভাসমান একজন মুসলিম অজ্ঞাতনামা পুরুষের (৩৫) এর অর্ধগলিত মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তাহার গায়ের রং শ্যামলা, উচ্চতা অনুমান ৫ ফুট ৫ ইঞ্চি, মাথার চুলের রং কালো, পড়নে গামছা ছিল। এ সংক্রান্তে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মামলা নং-০৯ তাং-০৫/১১/২০১৮, ধারা-৩০২/২০১/৩৪ পেনাল কোড সিআইডিতে তদন্তাধীন আছে। দীর্ঘ সময় অতিক্রান্ত হলেও অদ্যাবধি অজ্ঞাতনামা লাশের কোন পরিচয় পাওয়া যাইতেছে না।

 

এছাড়াও গত বছরের ২২ আগস্ট রাত পৌনে ১১ টায় জেলার রূপগঞ্জ থানাধীন গোবিন্দপুর এলাকাস্থ রাজউক পূর্বাচল ২২নং সেক্টরের ১৭নং ব্রীজের উপরে স্লাবের নীচে চেহারা বিকৃত, পঁচা, অর্ধগলিত ও শরীরে পোঁকাধরা অবস্থায় একজন অজ্ঞাতনামা পুরুষ (৩৫) এর মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ভোলাব তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ লাশের সুরতহাল প্রস্তুত করে এবং ময়না তদন্তের জন্য লাশ নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

 

এ সংক্রান্তে রূপগঞ্জ থানার মামলা নং-৬১ তাং-২৩/০৮/২০১৮ইং, ধারা-৩০২/২০১/৩৪ পেনাল কোড রুজু হয়। মামলাটি বর্তমানে  নারায়ণগঞ্জ সিআইডি’র উপ-পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ সেলিম রেজা তদন্ত করছেন। ময়না তদন্ত রিপোর্টে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে জানা যায়। দীর্ঘদিন অতিবাহিত হলেও অদ্যাবধি ভিকটিমের পরিচয় উদঘাটিত হয় নাই এবং কে বা কারা তাকে  হত্যা করেছে তা-ও জানা যায়নি।

 

অপরদিকে, গত বছরের ২২ সেপ্টেম্বর রাত পৌনে ৮ টায় জেলার রূপগঞ্জ থানাধীন কায়েতপাড়া ছনেরটেক বিলের পানি থেকে পঁচা, চেহারা বিকৃত ও অর্ধগলিত ভাসমান অবস্থায় একজন অজ্ঞাতনামা পুরুষ (৩০) এর মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে রূপগঞ্জ থানা পুলিশ লাশের সুরতহাল প্রস্তুত করে এবং ময়না তদন্তের জন্য লাশ নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। এ সংক্রান্তে রূপগঞ্জ থানার মামলা নং-৭৪ তাং-২২/০৯/২০১৮ইং, ধারা-৩০২/২০১/৩৪ পেনাল কোড রুজু হয়। 

 

মামলাটি বর্তমানে নারায়ণগঞ্জ সিআইডি’র উপ-পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ সেলিম রেজা তদন্ত করছেন। ময়না তদন্ত রিপোর্টে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে জানা যায়। দীর্ঘদিন অতিবাহিত হলেও অদ্যাবধি ভিকটিমের পরিচয় উদঘাটিত হয় নাই এবং কে বা কারা তাকে হত্যা করেছে তা জানা যায়নি।

 

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সিআইডি’র উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ সেলিম রেজা বলেন, অজ্ঞাতনামা লাশগুলোর পরিচয় শনাক্তের জন্য দীর্ঘদিন ধরে তদন্ত চলছে। কিন্তু লাশগুলো পঁচে গিয়ে চেহারা বিকৃত হওয়ার কারণে শনাক্ত করতে সমস্যা হচ্ছে। তাই এ বিষয়ে কোন তথ্য কারো জানা থাকলে তা সিআইডি নারায়ণগঞ্জকে জানানোর জন্য অনুরোধ করা হলো।

এই বিভাগের আরো খবর