বুধবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ২ ১৪২৬   ১৮ মুহররম ১৪৪১

তারেক রহমানের গ্রেফতারি পরোয়ানায় জেলা ও মহানগর নেতাদের ক্ষোভ

প্রকাশিত: ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪): বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ আরো তিনজনের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ আদালতে একটি মানহানি মামলা দায়ের এবং তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হওয়ায় নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপি নেতাদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে। তাই এর নিন্দা জানিয়ে সামনে অনুষ্ঠিানিক প্রতিবাদের ঘোষণা দিয়েছে দলটির নেতারা।  


এবিষয়ে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-আর্ন্তজাতিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদ বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতা কুক্ষিগত করার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে। তাই বিএনপির চেয়ারপার্সন ও তিনবারের সফল প্রধাণমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে  মিথ্যা মামলা দিয়ে কারাগারে আটকে রেখেছে। 


এখন তারা বাংলাদেশের আগামীর রাষ্ট্রনায়ক তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। কারণ এই অবৈধ সরকার বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানকে ভয় পায়। তারেক রহমান বীরের বেশে দেশে আসবেন ও দেশের মানুষকে স্বৈরাচারী দুঃশাসন থেকে মুক্ত করবেন।


জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মামুন মাহমুদ বলেন, আমি অবশ্যই এই তিব্র নিন্দ্রা জানাই। একটু চিন্তা করেন তো, কই তারেক রহমান আর কই এই মামলা দেওয়ার লোক আসলে নিজেদের প্রচার করার জন্যই সরকার দলীয় কিছু নেতারাই এমন করছে।  


তবে আমরা এটা নিয়ে একটুও ভাবুক নই কারণ তারেক রহমানের নামে এমন মামলা এর আগে অনেক হয়েছে। আমরা আমাদের সিনিয়র নেতাদের সাথে বসে অবশ্যই এর বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক প্রতিবাদ জানাবো।


মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন খান বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতা ধরে রাখার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে। তাই তারা তারেক রহমানকে নানা ভাবে হয়রানি করার চেষ্টা করছে। 


তারেক রহমানের নামে যেই মামলাটি করা হয়েছে, এটি সরকার দলের কিছু নেতা নিজেদের জাহির করার জন্যই এটা করেছে। আর তাঁর নামে এমন মামলা এর আগেও আরো হয়েছে। তো এটা নিয়ে আমরা বেশি চিন্তিত নই। এবং আমরা অবশ্যই এর প্রতিবাদ জানাবো।


নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মাশুকুল ইসলাম রাজীব বলেন, তারেক রহমানের নামে যে মামলাটি হয়েছে এটি একটি ভুয়া মামলা এর আগেও এমন মামলা তাঁর নামে অনেক হয়েছে।  আমরা এটা নিয়ে একটুও চিন্তিত নই। 


এটা কি কারণে হয়েছে সেটা অনেকটাই পরিষ্কার। তাঁর নামে এই মামলাটি যিনি দিয়েছে এর কারণ হচ্ছে, নিজেকে (পপুলার) জনপ্রিয় করা; এর বাইরে আর কিছুইনা। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই এবং অতি শীঘ্রই আমরা এর প্রতিবাদ জানাবো।
 

এই বিভাগের আরো খবর