বুধবার   ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৭ ১৪২৬   ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪১

জার্মান টেক্সটাইল ইউনিভার্সিটির সাথে ক্রোনি গ্রুপের চুক্তি

প্রকাশিত: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) : দেশের গার্মেন্টস শিল্পের অগ্রগতি ও দক্ষ জনশক্তি আরো বাড়াতে জার্মান টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে পাঁচ বছর মেয়াদী দ্বিপক্ষীয় একটি চুক্তি সম্পন্ন হয়েছে নারায়ণগঞ্জের রপ্তানিমুখী গার্মেন্টস শিল্প প্রতিষ্ঠান ক্রোনি গ্রুপের। 

 

বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রয়ারি) ফতুল্লায় বিসিক শিল্পনগরীর পাশে অবস্থিত এই শিল্প প্রতিষ্ঠানটির কারখানা পরিদর্শনে আসেন জার্মান টেক্সটাইল ইউনিভার্সিটির দুই প্রফেসর প্রকৌশলী ড. আলেকজান্ডার বুজন, ড. লুজ বুজবন ও ১০ শিক্ষার্থীসহ ১২ সদস্যের একটি বিশেষজ্ঞ প্রতিনিধি দল।

 

পরে দুই দেশের প্রতিনিধিদের মধ্যে এ বিষয়ে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এই চুক্তির ফলে গার্মেন্টস শিল্পে দুই দেশের মধ্যে অভিজ্ঞতা বৃদ্ধিসহ আমদানি রপ্তানি ও বানিজ্যিক সম্পর্ক আরো উন্নত হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।


 
ইউরোপিয় ইউনিয়নের নের্তৃত্ব দেয়া দেশ জার্মানীর সবচেয়ে বড় টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের এই প্রতিনিধি দল বৃহস্পতিবার দিনভর ক্রোনি গ্রুপের প্রতিষ্ঠান অবন্তী কালারের উৎপাদন, বিপণন, নিটিং. ডাইং, প্রিন্টিং ও এ্যামব্রয়ডারি বিভাগসহ বিভিন্ন শাখা ঘুরে দেখেন। এখানকার মনোরম পরিবেশ, উন্নত ব্যবস্থাপনা, আধুনিক ফ্যাশন ডিজাইন, স্বল্প সময়ে অধিক উৎপাদন ও শ্রমিকদের সুনিপুণ দক্ষতা দেখে তারা মুগ্ধতা প্রকাশ করেন। পাশাপাশি বাংলাদেশের সাথে এই সম্পর্ক সৃষ্টির ফলে ইতিবাচক আশা ব্যক্ত করেন তারা।

 

পরিদর্শন শেষে জার্মান টেক্সটাইল ইউনিভার্সিটির প্রফেসর প্রকৌশলী ড. আলেকজান্ডার বুজন বাংলাদেশে এই সফরের ইতিবাচক দিক তুলে ধরে বলেন, এখানে না আসলে তারা জানতেই পারতেন না বাংলাদেশের গার্মেন্ট শিল্পের উৎপাদিত পোশাক এতো আকর্ষণীয় এবং গুণগত মানসম্পন্ন। তাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এখানে এসে ব্যবহারিক অনেক কিছু সরাসরি শিখতে পারবে। এখান থেকে শিক্ষা অর্জন করে তারা তাদের দেশের ফ্যাশন খাতকে আরো সমৃদ্ধ করবে বলে মনে করেন তিনি। 

 

একই ইউনিভার্সিটির প্রফেসর ড. লুজ বুজবন বাংলাদেশের সাফল্য কামনা করে বলেন, এখানাকার শিল্প প্রতিষ্ঠানের শিক্ষানবীশ কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা তাদের দেশে গিয়ে কারিগরি প্রশিক্ষণ নিয়ে আরও দক্ষ জনশক্তিতে পরিণত হবে। এতে করে বাংলাদেশের সুনাম আরো বৃদ্ধি পাবে বলে তিনি আশা করেন। বাংলাদেশের সাথে জার্মানীর এই সম্পর্ক দীর্ঘমেয়াদী হলে দুই দেশই লাভবান হবে বলে তিনি মনে করেন। 


একই আশা ব্যক্ত করে ক্রোনি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এএইচ আসলাম সানি জানান, এই চুক্তির মধ্য দিয়ে দুই দেশের মধ্যে একটি সেতুবন্ধন সৃষ্টি হবে। জার্মানীর  টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাযেমন এখান থেকে  ব্যবহারিক শিক্ষা অর্জন করতে পারবে, তেমনি এখানকার শিক্ষানবীশ কর্মকর্তা কর্মচারীরাও জার্মানীতে গিয়ে টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তাদের ফ্যাশন ও শিল্পখাত পর্যবেক্ষণ করে শিক্ষা অর্জন করে নিজেদের অভিজ্ঞতা এখানে কাজে লাগাবে। এতে করে দুই দেশেই দক্ষ জনশক্তি বৃদ্ধি পাবে। 

 

তিনি বলেন, এছাড়া রানা প্লাজার দুর্ঘটনার কারণে বাংলাদেশের গার্মেন্টস খাতের প্রতি আন্তর্জাতিক বাজারে বিরূপ ধারণা সৃষ্টি হয়ে গার্মেন্টস শিল্পে ধ্বস নেমেছিল। তাতে বিদেশি বায়ারদের কাছে আমাদের ইমেজ নষ্ট হয়ে যায়। তবে ইউরোপীয়ার ইউনিয়নের নের্তৃত্ব দেয়া উন্নত দেশ জার্মানীর সাথে এই সম্পর্ক সৃষ্টির মধ্য দিয়ে আমাদের দেশের নতুন ইমেজ সৃষ্টি হবে। আমাদের দেশের ফ্যাশন সংস্কৃতি ও ভালো দিকগুলো সম্পর্কে তারা নতুন করে জানবে এবং আন্তর্জাতিক বাজারে তাদের মাধ্যমেই বাংলাদেশের সুনাম ছড়িয়ে চাহিদা বৃদ্ধি পাবে। এতে করে বাংলাদেশের দীর্ঘমেয়াদী সফলতা অর্জন হবে বলে আশা করছেন ক্রোনি গ্রুপের কর্ণধার আসলাম সানি। 

এই বিভাগের আরো খবর