শনিবার   ৩০ মে ২০২০   জ্যৈষ্ঠ ১৬ ১৪২৭   ০৭ শাওয়াল ১৪৪১

কাস্টিং কাউচের প্রস্তাব পেয়েছিলেন শার্লিন

প্রকাশিত: ৯ মে ২০২০  

বিনোদন ডেস্ক: অভিনয় জগত মানেই গ্ল্যামার জগত। এই ধারনাটা কমবেশি সকলেরই রয়েছে। কিন্তু অনেকেই হয়তো জানেন না যে এই গ্ল্যামারের পেছনেই লুকিয়ে রয়েছে এক কঠিন বাস্তব। কথায় বলে, প্রদীপের সলতের নীচেই থাকে সবথেকে বেশি অন্ধকার।


শোবিজ অঙ্গনের ঝলঝলে জগতের আড়ালে অন্ধকার দিকটাও রয়েছে। কাস্টিং কাউচ থেকে শুরু করে নানা প্রতিকূল ঘটনার মুখোমুখি হতে হয় অভিনয়শিল্পীদের। অতীতে এ বিষয়ে খুব বেশি আলোচনা না হলেও এখন অনেকে এটি নিয়ে মুখ খুলছেন। সম্প্রতি এ বিষয়ে কথা বলেছেন অভিনেত্রী শার্লিন চোপড়া।


এই অভিনেত্রী বলেন, শুরুর দিকে যখন আলোচনায় আসিনি, আমি প্রায়ই নির্মাতাদের কাছে যেতাম, যেন আমার মধ্যে যে প্রতিভা লক্ষ্য করেছি তারাও সেটি দেখেন। আমার পোর্টফোলিও নিয়ে তাদের কাছে যেতাম। কিন্তু তারা বলত, ‘আচ্ছা ঠিক আছে, আমরা নৈশভোজে দেখা করব।’ তাদের জিজ্ঞাসা করতাম, কখন যেতে হবে? তারা আমাকে রাত ১১ টা অথবা ১২ টায় যেতে বলতেন। কিন্তু সেই সময় বিষয়টি বুঝতে পারিনি।


শার্লিন আরও বলেন, তাদের কাছে নৈশভোজ মানে সমঝোতা। এভাবে যখন চার থেকে পাঁচবার হতে থাকে, আমি বিষয়টি বুঝতে পারি নৈশভোজে কেন ডাকা হয়। আমি সিদ্ধান্ত নিই, আমি নৈশভোজেই যাব না। এরপর যখন একজন আমাকে আবারো নৈশভোজে যেতে বলে আমি জানায়, আমি নৈশভোজ করি না। আমার ডায়েট চলছে। আপনি আমাকে সকালের নাস্তায় অথবা দুপুরের খাবারে যেতে বলুন আমি রাজি আছি কিন্তু নৈশভোজে না।


বেন্দি মাব্বু তেলেগু ভাষার বেন্দি মাব্বু সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্র জগতে পা রাখেন শার্লিন। এরপর বেশ কয়েকটি বলিউড সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন। 
 

এই বিভাগের আরো খবর