বুধবার   ২৩ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৮ ১৪২৬   ২৩ সফর ১৪৪১

এদেশে সংখ্যালঘু বলতে কিছু নেই, সবাই সমান : শামীম ওসমান

প্রকাশিত: ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) :  নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনের সংসদ সংসদ একেএম শামীম ওসমান বলেছেন, ধর্ম যার যার উৎসব সবার। এদেশে সংখ্যালঘু বলতে কিছু নেই। মুসলমান, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান আমরা সবাই সমান। আমাদের মধ্যে কোন ভেদাভেদ নেই। কেউ আল্লাহ, কেউ ভগবান বলি আমাদের সৃষ্টিকর্তা একজনই। সুতরাং হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষেরা বিব্রত হবেন না। এদেশে ’৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে যেমনি করে মসজিদের ইমামকে হত্যা করা হয়েছে ঠিক তেমনি হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষদেরকেও হত্যা করা হয়েছে। সবাইকে একসাথেই দাফন করা হয়েছিল।


সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে উপজেলা মিলনায়তনে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের বাস্তবায়নাধীন সেকেন্ডারি এডুকেশন সেক্টর ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রাম (সেসিপ) এর আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে ১১৭ সেট  বৈজ্ঞানিক সরঞ্জামাদি বিতরণ ও আসন্ন শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে  সদর উপজেলাধীন প্রতিটি মণ্ডপের জন্য সরকার প্রদত্ত চালের ডিউ লেটার প্রদান করা হয়।


এ সময় সাংসদ শামীম ওসমান শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বলেন, বর্তমান সরকার শিক্ষকদের যথাযথ মূল্যায়ন করছেন। সরকার তাদের বেতন-ভাতা ও শিক্ষার উপকরণ প্রদান করছে। এখন শিক্ষার মান উন্নয়নের দায়িত্ব শিক্ষকদের। প্রতিটি স্কুল, কলেজের শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার মান বৃদ্ধি করতে শিক্ষকদের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করতে হবে। আমাদের সবার উচিত শিক্ষদের সম্মান দিয়ে কথা বলা ও তাদের সাথে সৌহার্দ্যপূর্ণ আচার ব্যবহার করা।


নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদা বারিকের সভাপতিত্বে আনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম সাইফুল্লাহ বাদল, সাধারণ সম্পাদক হাজী শওকত আলী, সদর উপজেলার চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস, মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান ফাতেমা মনির, সদর উপজেলা পল্লী উন্নয়ন অফিসার বেলাল হোসেন, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ জাতীয় পরিষদের সদস্য বাসুদেব চক্রবর্তী, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিখণ সরকার শিপন, মহানগরের সাধারণ সম্পাদক উত্তম সাহা, ফতুল্লা থানা কমিটির সভাপতি রঞ্জিত মণ্ডল, সাধারণ সম্পাদক অরুণ কুমার দাশ, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা কমিটির সভাপতি শিশির ঘোষ অমর প্রমুখ।


এ সময়ে সাংসদ শামীম ওসমান আসন্ন শারদীয় দূর্গোৎসব উপলক্ষে সদর উপজেলা ৭২ টি পূজা মণ্ডপের প্রতিটি জন্য ৫০০ কেজি করে সরকার প্রদত্ত চালের ডিউ লেটার জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিখন সরকার শিপনসহ পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দের হাতে হস্তান্তর করেন।


এছাড়া  সদর উপজেলাধীন বিভিন্ন স্কুলে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের বাস্তবায়নাধীন সেকেন্ডারি এডুকেশন সেক্টর ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রাম (সেসিপ) এর আওতায় ১১৭ সেট বৈজ্ঞানিক সরঞ্জামাদি বিভিন্ন স্কুলে বিতরণ করেন। 

এই বিভাগের আরো খবর