বুধবার   ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   ফাল্গুন ৮ ১৪৩০

উৎসাহ উদ্দীপনা ও কাজ করার প্রেরণা যোগায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

যুগের চিন্তা রিপোর্ট

প্রকাশিত: ৩ জুলাই ২০২২  

বহুল প্রতিক্ষিত ঐতিহ্যবাহী ডি.এস.এস ক্লাব মাঠ এর উদ্বোধনী নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, এই মাঠটি করেছি প্রায় কোটি টাকা দিয়ে। কিন্তু সম্পূর্ণ সরকারের টাকা দিয়ে হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। 

 

ওনি আমাদের প্রায় ৪০০ কোটি টাকা ডিপিটি পাশ করে দিয়েছেন। সেখান থেকেই আমরা এই মাঠগুলোর কাজ করে যাচ্ছি আলাউদ্দিন খান মাঠ ও আমরা কাজ করেছি। আপনারা জানেন, শেখ রাসেল পার্কের ভিতরে অনেক সুন্দর একটা মাঠ রয়েছে আমরা অপেক্ষায় আছি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করবেন। আজকে চমৎকার খেলেছেন বঙ্গসাথী ডিএসএস ক্লাব আপনাদের সকলকে ধন্যবাদ। 

 

ডিএসএস ক্লাব কিন্তু অনেক চেষ্টা করেছে এবং বঙ্গসাথী ভাল খেলেছেন। এইরকম খেলা যেন আপনাদের অব্যাহত থাকে অনুরোধ করবো নারায়াণগঞ্জের প্রাক্তন খেলায়ারদের মাঝে মাঝে তাদের চেহারা দেখি পড়ে আর খুঁজে পাই না। আপনারা কি পারেন না আপনাদের এলাকায় প্রত্যেকটি মাঠের দায়িত্ব নিয়ে বাচ্চাদের খেলা শিখাতে। যদি আপনাদের কোন লজিস্টিক সার্পোট লাগে সেই সার্পোট আমরা নারায়াণগঞ্জ সিটি করর্পোরেশন দিতে প্রস্তুত। 

 

আমি আপনাদের সুবিধার্থে বলি আমরা নদীর ওইপারে মদনগঞ্জ ওয়েল ফেয়ারের মাঠকে প্রতি মাসে কিছু সামান্য টাকা দেই যদি এটা অনেক কম তারপরও দিচ্ছি। আমাদের নিপু ভাই আজকে কিন্তু ভাইয়ের সহযোগীতায় ওইখানে অনেকগুলো বাচ্চাকে ফুটবল খেলা শিখাচ্ছি। 

 

আমাদের একটি মহিলা প্রমিলা ফুটবল লীগ আছে সেখানে ৩৫টা মেয়ে আমাদের আলাউদ্দিন খান স্টেডিয়ামে ওরা ট্রেনিং করছে যা দরকার লজিস্টিক সার্পোট সেটা আমি দিয়ে যাচ্ছি। তারা চমৎকার খেলে সেখান থেকে একটি মেয়ে ফ্রান্স গেছে খেলতে আমি তাদেরও মাঝে মাঝে পেট্রোনাইজ করি। আমাদের নভেরা সাইক্লিং টিম আছে। 

 

মেয়েরা যারা এগিয়ে যাচ্ছে তাদেরকে আমরা খানপুরে জায়গা দিয়েছি বাচ্চাদের সাইক্লিং শেখানোর জন্য নারীদের স্কুটার শিখার জন্য। আমরা নারীদের শক্তিশালী করার জন্য কেরাতিসহ আমরা অনেক কাজ করছি আমরা আপনাদের নিয়েও কাজ করতে চাই। আমরা শুধু খেলার মাঠ নিয়েই কাজ করছি না মসজিদ করছি মন্দির করছি খেলার মাঠ করছি পাবলিক স্পেশ করছি এমন কোন সেক্টর নাই যেখানে নারায়ণগঞ্জ সিটি করর্পোরেশন কাজ করছে না। 

 

শনিবার ২জুন বিকেলে ঐতিহ্যবাহী ডি.এস.এস ক্লাব মাঠ এর উদ্বোধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। মেয়র আইভী বলেন, এই সব কিছুর অবদান হলো মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা যার উৎসাহ উদ্দীপনায় আমার প্রেরণা দেয় কাজ করার জন্য। 

 

আপনারা দেখেছেন এই পদ্মা সেতু অসম্ভবকে সম্ভব করে দিখিয়েছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এই বাংলার জনগণ ওনার আসা উৎসাহ উদ্দীপনা এবং আপনারা জানেন, বঙ্গবন্ধু আমাদের এই দেশ দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের অর্থনৈতিক মুক্তি দিচ্ছে আমাদের মানসিকতা বাড়িয়ে দিচ্ছে আপনারা চাইলে ইচ্ছা করলে খেলার মাধ্যমে সারা বিশ্বে বাংলাদেশকে পরিচিতি করতে পারেন। 

 

আর্জেন্টিনা-ব্রাজিলে পতাকা লাগিয়ে ছেয়ে ফেলেছে আমাদের পতাকা দিয়ে সারা বাংলাদেশকে ছেয়ে ফেলতে পারি না কেন মোমেন মুন্নার মত ফুটবলার তৈরী হচ্ছে না আমি সব ধরণের পৃষ্ঠপোষকতা করতে প্রস্তুত আমি বলব সোনালী অতীতকে এগিয়ে আসার জন্য ডিএসএস ক্লাব, বঙ্গসাথী। 

 

মোহসীন ক্লাব ও শুকতারা ক্লাব আপনাদের ক্লাব করার জায়গা দিয়েছি ঘুমিয়ে থাকলে চলবে না আমি ডেকে ডেকে আর জাগাতে পারব না আসুন আবার এক সাথে নারায়াণগঞ্জকে আবার পূর্বের মত ফিরিয়ে নিয়ে যাই। সন্ত্রাস হিসেবে নারায়াণগঞ্জকে চিনবে না চিনবে ঐতিহ্য, ইতিহাস ,খেলাধুলা, সাংস্কৃতি, রাজনৈতিক অর্থনৈতিক আদমজীর মত অর্থনীতিতে সেই নারায়াণগঞ্জকে আবার ফিরিয়ে আনতে চাই।


 এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ডিএসএস ক্লাবের সভাপতি শাখাওয়াত হোসেন বাচ্চুর সভাপত্বিতে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের প্রশাসক আনোয়ার হোসেন, সাবেক জাতীয় ফুটবলার আশরাফ উদ্দীন আহম্মেদ চুন্নু, আওয়ামীলীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান দিপু, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, শহর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলী রেজা উজ্জল প্রমুখ। এসএম/জেসি 
 

এই বিভাগের আরো খবর