শুক্রবার   ২২ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৮ ১৪২৬   ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

ঈদের পরদিনই যেতে হবে বিদেশে : এড.তৈমূর 

প্রকাশিত: ২ জুন ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪)  মুসলমানদের জন্য  ঈদুল ফিতর উদযাপনকে ঘিরে চলে নানা প্রস্তুতি, আর এই ঈদ উদযাপনকে নিয়ে যুগের চিন্তা ২৪’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে কিছু কথা বলেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা এড.তৈমূর আলম খন্দকার। সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন সেলিম চৌধুরী। 

 

ঈদ প্রস্তুতি নিয়ে তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের আশায় সারা মাস রোজা রাখার পর সমাগত ঈদুল ফিতর। প্রতিবারের ন্যায় নিজ বাসা নারায়ণগঞ্জ ও রূপগঞ্জের রুপসিতে ঈদ উদযাপন করবো। এশিয়া মহাদেশগুলোর সমন্বয়ে বধিরদের নিয়ে প্রস্তুতি সভার জন্য কো-অর্ডিনেটর এর দায়িত্ব পালনে ব্যস্ত থাকার দরুণ ঈদের পরের দিন পাড়ি জমাবেন ভারতে, ৫ দিন কাটাবেন ওখানে। জুলাইতে ফ্রান্সে ১৫ দিনের বড় ধরণের আয়োজনের অংশবিশেষ হলো এ প্রস্তুতি সভার মুল লক্ষ্য।

 

ঈদের দিন এবাব ব্যস্ততার মধ্যে কাটে বলে জানান তৈমুর আলম। তিনি বলেন, বিগত দিনের ঈদগুলোতে নামাজ আদায় করার পর  ম্যাডামের সাথে সাক্ষাতের মাধ্যমে ঈদ শুরু হতো তেমনি করে দলের মহাসচিব, মোশারফ হোসেন ও মওদুদ আহমেদকে অনুরোধ করেছেন ঈদের দিন নামাজের পর নেতাকর্মীদের সাক্ষাতের ব্যবস্থা করার জন্য। তারা আমার এ কথাটাকে গুরুত্বসহকারে দেখবেন বলে আমাকে জানিয়েছেন।

 

ছোটবেলার ঈদ ও বর্তমান ঈদ উদযাপনে অনেক পরিবর্তন আসছে বলে মনে করেন তৈমূর আলম খন্দকার। তিনি বলেন, আগে নারায়ণগঞ্জে ঈদের জামাত আদায় করে বাসায় এসে ঈদসামগ্রী খেয়ে রওনা হতাম রুপগঞ্জের রুপসীর দিকে। লঞ্চযোগে নাঃগঞ্জ থেকে জনপ্রতি লাগতো পাঁচ আনা নতুবা বাবার সে সময়ের প্রাইভেটকারযোগে রওনা হলে ফেরি পার হতে টাকা লাগতো ২ টাকা করে। সেখানেই ঈদের আসল আনন্দ হতো। 

 

সকলকে ঈদের অগ্রীম শুভেচ্ছা জানিয়ে তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, এই ঈদ সবার নিরাপদ, সুন্দর ও আনন্দের মধ্যে কাটুক এই কামনা করি। 

এই বিভাগের আরো খবর