শুক্রবার   ২২ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৮ ১৪২৬   ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

ঈদের দিন ছাড়া বছরে কোন ছুটি নাই : ডা.আবু জাহের

প্রকাশিত: ৩ জুন ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) : ঈদ মানেই আনন্দ। ঈদ মানেই খুশি। ঈদের খুশি পরিবার প্রিয়জন সবার সাথে ভাগ করে নেওয়ার মধ্যেই আছে তৃপ্তি, আছে আনন্দ। আর মাত্র কয়েক দিন পরেই আসছে মুসলমান ধর্মালম্বীদের আনন্দের দিন ঈদুল ফিতর। দিনটির আনন্দ ভাগাভাগি করতে একজন অপরজনের কুশল আদায় করে ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে মিলিত হবে এই দিনে। তবে ডাক্তারের  সেবামূলক পেশায় আনন্দের এই দিনটিতেও ডাক্তাররা আনন্দ ভুলে জরুরী রোগীর খবরে আনন্দ বিসর্জন দিয়ে রোগীর কাছে ছুটে আসে। ঈদুল ফিতর উদযাপন নিয়ে যুগের চিন্তা ২৪ এর সাথে ঈদের এমনি কিছু স্মৃতি নিয়ে বলেছেন খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতালের ত্বত্তাবধায়ক ডা. আবু জাহের। সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন নুসরাত জাহান সুপ্তি। 

 

ঈদ উদযাপন প্রস্তুতি নিয়ে ডা. আবু জাহের বলেন, হাসপাতালে ঈদে সকল ব্যবস্থাপনা ঠিক থাকছে কিনা সেসব ব্যবস্থা নেওয়াই এখন ঈদ প্রস্তুতি, আর এটাই ঈদ উদযাপন প্রস্তুতি । আর যদি ব্যক্তি জীবন নিয়ে বলি তেমন কোন প্রস্তুতি এখন আর নেওয়া হওয়া হয় না। হাসপাতালের ঈদ প্রস্তুতি এখন আমার ঈদ প্রস্তুতি। 

 

ঈদের দিনের পরিকল্পনা নিয়ে বলেন, নারায়ণগঞ্জে এবার আমার প্রথম ঈদ। কয়েকমাস পূর্বেই ৩০০ শয্যা হাসপাতালের দায়িত্ব নিয়েছি। সপরিবারে কাজলাতে থাকি। ঈদের নামাজ পড়ে পরিবারের সাথেই সময় কাটাবো। এর মধ্যে হাসপাতালের জরুরী কিছু হলে আবার হাসপাতালে চলে আসতে হবে।   
পরিবারের জন্য কেনাকাটা সম্পর্কে বলেন, কেনাকাটার কোন দায়িত্ব নিতে পারি না আমি। আমার মিসেস এর কাছেই এসব দায়িত্ব থাকে। ডাক্তার এর পেশার দায়িত্বে থেকে ওই সকল দিক দেখার সুযোগ হয়ে উঠে না।

 

ঈদ নিয়ে বিশেষ কোন পরিকল্পনা নিয়ে বলেন, ঈদের দিন ছাড়া বছরে আর কোন ছুটি নাই। এই দিনেও যেকোন সমস্যা হলে ছুটে আসব হাসপাতালে। কিন্তু সুযোগ পেলে কাছাকাছি পরিবারের সাথে ঘুরে আসব। কিন্তু সেই সময়টা নাও পেতে পারি। 

 

ঈদের পূর্বের স্মৃতি মনে করে বলেন, আমি যখন হোমনায় আবাসিক মেডিকেল অফিসার হিসেবে ছিলাম তখন ঈদের দিন প্রায়ই জরুরী রোগীর জন্য ছুটে আসতাম। আবার এমনো হয়েছে রাতে ২টার সময় রোগীর বাড়িতে গিয়েছি। কোমড় পর্যন্ত পানি রাস্তায় নৌকা দিয়ে গিয়েছি। এরপর সকালে ফিরেছি। 
 ছোট বেলার ঈদের স্মৃতির কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন, আমি গ্রামেই ঈদ কাটাতাম। সেই সময়ে ঈদের আমেজটা ছিল অন্যরকম। এখনকার ঈদ পুরোপুরি ভিন্ন। ঈদের সেই ইমেজ এখন আর নেই। সকলের দোয়া নিয়ে ঈদের সেলামি নিতাম। এক অন্যরকম আনন্দের সাথে দিনটা কাটাতাম।   

 

শুভানুধ্যায়ীদের উদ্দেশ্যে বলেন, সকলেই ঈদের আনন্দের সাথে নিরাপত্তার কথা মনে রেখে ঈদের আনন্দ করতে হবে। আর সকলকেই ঈদের শুভেচ্ছা, ঈদ মোবারক। 
  

এই বিভাগের আরো খবর