বুধবার   ২৩ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৮ ১৪২৬   ২৩ সফর ১৪৪১

ইউনাইটেড এসোসিয়েশনে ডিবির অভিযান, তাপুসহ আটক ৭

প্রকাশিত: ৪ অক্টোবর ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা২৪) : ফতুল্লার ধর্মগঞ্জস্থ দি ইউনাইটেড এসোসিয়েশন লিমিটেডে অভিযান চালিয়েছে জেলা ডিবি পুলিশ। বৃহস্পতিবার  (৩ অক্টোবর) দিবাগত রাতে জেলা ডিবির একটি টিম এ অভিযান চালায়। 


এসময় ক্লাব সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন তাপু (৫৫),ইকবাল(৫৬), গলাকাটা কামাল(৪৯), শামসুজ্জামান, মোস্তাফিজুর রহমান,এ বিএম শফিকুল ইসলাম ও  আফজাল হোসেনকে আটক করে ডিবি। তাদের কাছ থেকে ৩ বান্ডেল তাস ও ২০ হাজার ৫’শ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে জেলা পুলিশ।


দি ইউনাইটেড এসোসিয়েশন লিমিটেড এলিট শ্রেনীর ক্লাব হিসেবে পরিচিত। এনায়েতনগর ইউনিয়নের আজমতপুর এলাকায় এর অবস্থান। এই এসোসিয়েশনে অনেক আগে থেকেই জুয়ার আসর বসার অভিযোগ রয়েছে। ৬ শতাধিক শতাধিক সদস্যর মধ্যে মাত্র গুটি কয়েক সদস্যদের দখলে এই ক্লাবটি রয়েছে বলে অভিযোগ ক্লাবের সদস্যদের। 


ক্লাবের সদস্যরা জানায়, এই ক্লাবটি মূলত মৃত মজিদ কন্ট্রাক্টারের পারিবারিক একটি সংগঠন হিসেবে এলাকায় পরিচিত। তারা যেভাবে চায় সেভাবেই এই ক্লাবটি পরিচালিত হয়। সদস্যদের মতামতের কোন তোয়াক্কাই করা হয় না। সংগঠনের গঠন তন্ত্রের বাইরে এই ক্লাব পরিচালিত হয় বলেও অনেকে অভিযোগ করেন। 


বৃহস্পতিবার দিবাগত গভীর রাতে নারায়ণগঞ্জ জেলা ডিবি পুলিশ দি ইউনাইটেড এসোসিয়েশনে অভিযান চালায়।  এসময় ক্লাবটির সভাপতি মৃত মজিদ কন্ট্রাক্টারের ছেলে তোফাজ্জল হোসেন তাপু, ধর্মগঞ্জ এলাকার আবুল হাশেমের ছেলে কামাল ওরফে গলাকাটা কামাল, মার্ক টাওয়ারের মৃত আব্দুল জব্বারের ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান, আজমেরী বাগের মৃত আব্দুল হাইয়ের ছেলে শামসুজ্জামান, কেরানীগঞ্জের কাজির গাঁও এলঅকার মৃত আব্দুল মালেকের ছেলে আফজাল হোসেন, পঞ্চবটির জাপানী ভিলার বাসিন্দা ও ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগ নেতা এবিএম শফি, ধর্মগঞ্জ চট্টলার মাঠ এলাকার কুদ্দুসের ছেলে ইকবাল হোসেনকে আটক করে। 


অভিযানে আটককৃতদের কাছ থেকে ৩ বান্ডেল তাস ও নগদ ২০ হাজার ৫’শ টাকা  উদ্ধার করে  ডিবি পুলিশ। উল্লেখ্য,পঞ্চবটির ধনীদের ক্লাব হিসেবে পরিচিত ইউনাইটেড এসোসিয়েশন। ক্লাব সংশ্লিষ্টরা জানায়,প্রতিরাতেই এখানে বসে জুয়ার আসর।


বিশেষ করে প্রত্যেক বৃহস্পতিবার রাতে শুরু হয় আসরটি। চলে শুক্রবারও। ক্লাবের মধ্যে থাকা  ভিআইপি রুমে হয় জুয়া খেলা। এলাকার বিত্তবানরা ছাড়াও শহরের এলিট শ্রেনীর লোকরা এখানে যাতায়াত করে।  


এব্যাপারে জেলা বিশেষ শাখার ডিআইও-২ সাজ্জাদ রোমন বলেন, জুয়া খেলার সময় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়। পরে তাদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করে শুক্রবার বিকেলে আদালতে পাঠানো হয়।

এই বিভাগের আরো খবর