শুক্রবার   ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৬   ০৮ রবিউস সানি ১৪৪১

আর্মি মার্কেট এলাকায় সড়কের পাশে ড্রেনে স্লাব নেই, ঘটছে দুর্ঘটনা

প্রকাশিত: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

যুগের চিন্তা ২৪ : নগর জুড়ে প্রায় সব জায়গায় সড়কের পাশে ফুটপাতের পাশে ড্রেন রয়েছে। কিন্তু ড্রেন থাকলেও ড্রেনের উপর ঢাকনা নেই। ফলে প্রতিদিনই ঘটছে ছোট বড় দুর্ঘটনা। ঝুঁকি নিয়েই পথচারীরা চলাচল করছে।  


২৬ সেপ্টেম্বর (মঙ্গলবার) সরেজমিনে নগরীর চাঁনমারির আর্মি মার্কেট এলাকায় এমন দৃশ্য দেখা যায়। চাঁনমারির  ফুটপাত ঘুরে দেখা যায়, আর্মি মার্কেটটির সামনের অংশের ফুটপাতের পাশে বিশাল লম্বা ড্রেন । তবে ড্রেন থাকলেও তার উপর নেই কোনো ঢাকনা । 


ড্রেন তৈরী করা হলেও উপকার পাচ্ছে না এলাকাবাসী। ড্রেনটি যে কারণে তৈরি করা হয়েছিল তার উপযুক্ত ব্যবহার করা হয়েছিল কিনা সেটা এখনো দেখা যায়নি ।  


ড্রেনটি ময়লা আর ইটের কংক্রিটে ভরে আছে। এই ড্রেন দিয়ে পানি নিঃষ্কাশন হয় না। দিনের মানুষের চলাচল থাকলেও সন্ধ্যার  ফুটপাতে চলাচল বৃদ্ধি পায়। রাতের অন্ধকারে ফুটপাতে চলাচলের সময় ড্রেনের ফাঁকা স্থান অনেক মানুষের চোখে পড়ে না। ফলে ইতিমধ্যে পথচারী আহত হবার একাধিক ঘটনা ঘটেছে।


চাঁনমারি আর্মি মার্কেটের পাশে থাকা দোকানগুলোর ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করে বলেন, দোকানের সামনে থাকা ফুটপাতের সামনে ঢাকনাবিহীন ড্রেনের কারণে ব্যবসায়ীদের ব্যবসায় ব্যাঘাত ঘটছে। আমরা ও আমাদের ক্রেতারা প্রায় সময় পড়ে ব্যাথা পেয়েছি


এদিকে পথচারীরা অভিযোগ করে জানিয়েছেন, বাধ্য হয়েই ঝুঁকি নিয়েই ঢাকনা বিহীন এই ফুটপাত ব্যবহার করছেন তারা। ড্রেন দিয়ে পানি সরে না। অথচ এই ড্রেনের কারনে মানুষের ক্ষতি হচ্ছে।   


উত্তর চাষাঢ়ার বাসিন্দা রিফাত বলেন, ড্রেনে ঢাকনা না থাকায় রাতের বেলায় লোকজন ড্রেনের ময়লা ফেলে যায়। ফলে ড্রেনটি থেকে অনেক র্দুগন্ধ বের হয়। এলাকাবাসী কিছু কিছু অংশে ঢাকনা দিয়েছে।


দিনে ফুটপাতের চলাচলের সময় ড্রেনের এই ফাঁকা স্থানগুলো চোখে পড়লেও রাতের অন্ধকারে তা বোঝা যায় না। বিদ্যুৎ না থাকলে অনেকেই ড্রেনের মধ্যে পড়ে গিয়ে ব্যাথা পেয়েছে। 
 

এই বিভাগের আরো খবর