রঙিন পোশাকে ‘এক নম্বরে’ বাংলাদেশ

প্রকাশিত: ২১:৩২, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২

রঙিন পোশাকে ‘এক নম্বরে’ বাংলাদেশ

রঙিন পোশাক গায়ে জড়ালেই বাংলাদেশের পারফরম্যান্স হয়ে ওঠে রঙিন। বিশেষ করে ৫০ ওভারের ক্রিকেটে টাইগাররা যেন অপ্রতিরোধ্য। শরীরী ভাষা থেকে শুরু করে আত্মবিশ্বাস– সব মিলিয়ে প্রবল প্রতিপক্ষও সাকিব-তামিম-মুশফিকদের সামনে দুমড়ে-মুচড়ে পড়ে! বাকি দুই ফরম্যাটে বাংলাদেশকে এখনও ‘নাবালক’ ভাবা হলেও লাল সবুজ জার্সিধারীরা ওয়ানডেতে নিজেদের সামর্থ্যের প্রমাণ রেখে যাচ্ছেন। এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) আরেকটি ওয়ানডে সিরিজ নিজেদের করে নিয়েছেন তারা। ঘরের মাঠে টানা পঞ্চম ওয়ানডে সিরিজ জয় হলেও ঘরে-বাইরে মিলিয়ে এটি বাংলাদেশের হ্যাটট্রিক সিরিজ জয়। আফগানিস্তানকে ৮৮ রানে হারিয়ে সিরিজ জয় তো নিশ্চিত হয়েছেই, একইসঙ্গে ভারত-ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের মতো হেভিওয়েটদের পেছনে ফেলে আইসিসি ওয়ানডে সুপার লিগের পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান দখল করেছে বাংলাদেশ। আগামী বছরের মার্চ পর্যন্ত তালিকার শীর্ষ আটে থাকলেই সরাসরি ২০২৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ পাবে তামিম ইকবালের দল। ১৪ ম্যাচে ১০ জয়ে ১০০ পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশ এখন সবার শীর্ষে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইংল্যান্ডের ১৫ ম্যাচে পয়েন্ট ৯৫। শুক্রবার নিজেদের পয়মন্ত ভেন্যু চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সর্বোচ্চ রান করেছে বাংলাদেশ। সাগরিকার পাড়ে লিটন দাসের ব্যাট যেন হয়ে উঠেছিল শিল্পীর রঙতুলি! সেই তুলির আঁচড়ে পুরো মাঠ জুড়ে ছবি এঁকেছেন তিনি। চোখধাঁধানো ব্যাটিংয়ে পূর্ণ করেছেন ক্যারিয়ারের পঞ্চম সেঞ্চুরি। প্যাভিলিয়নে ফেরার আগে ১২৬ বলে ১৬ চার ও ২ ছক্কায় করেছেন ১৩৬ রান। লিটনের এমন ইনিংসের দিনে মুশফিকুর রহিমও ছিলেন দুর্দান্ত। ১৪ রানের জন্য সেঞ্চুরি বঞ্চিত হওয়া মুশফিক ওয়ানডেতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হিসেবে সাকিব আল হাসানকে টপকে গেছেন। লিটন-মুশফিকের রেকর্ড ২০২ রানের জুটির ওপর ভর করে বাংলাদেশ ২১তম বারের মতো ৩০০ ছাড়ানো রান তোলে। তিন শতাধিক রানের স্কোর গড়ে ১৮ বারই জয়ের হাসি মুখে রেখে মাঠ ছেড়েছে টাইগাররা। রঙিন জার্সিতে মুশফিক-লিটনদের দিনে যদিও নিষ্প্রভ ছিলেন সাকিব-তামিম উভয়ে। আগের ম্যাচের মতো এই দুই তারকা প্রত্যাশা মেটাতে ব্যর্থ। অবশ্য টপ অর্ডারে তাদের ব্যর্থতার পরও শেষ পর্যন্ত চাপে পড়তে হয়নি স্বাগতিকদের। মুশফিক-লিটনের রেকর্ড জুটিতে ৩০৭ রানের বড় লক্ষ্যের সামনে পড়ে সফরকারীরা।

আফগানদের বিপক্ষে উইকেট পেয়ে সাকিব আল হাসান ও মেহেদি হাসান মিরাজের উদযাপনআফগানদের বিপক্ষে উইকেট পেয়ে সাকিব আল হাসান ও মেহেদি হাসান মিরাজের উদযাপন

আফগানরা অবশ্য কঠিন এই লক্ষ্যে খেলতে নেমে তাসকিন-শরিফুলদের সামনে খাবি খেয়েছেন। মিডল অর্ডারে রহমত শাহ (৫২) এবং নাজিবউল্লাহ জাদরান (৫৪) মিলে ৮৯ রানের জুটি গড়লেও ম্যাচ জয়ের জন্য যথেষ্ট ছিল না। সাকিব ব্যাটিংয়ে ব্যর্থ হলেও বোলিংয়ে ১০ ওভারে ৩৮ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন। শেষ পর্যন্ত ২৯ বল আগে আফগানিস্তানের ইনিংস থেমে যায় ২১৮ রানে। বাংলাদেশে জিতে নেয় টানা তৃতীয় ওয়ানডে সিরিজ। ১৯৮৬ সালে প্রথম আন্তর্জাতিক ওয়ানডে খেলে বাংলাদেশ। তবে একাধিক ম্যাচের সিরিজ খেলতে বেশ কয়েক বছর অপেক্ষা করতে হয়েছে। ১৯৯৯ সালে প্রথমবার ঘরের মাটিতে একাধিক ম্যাচের সিরিজ খেলে বাংলাদেশ। এরপর ২৩ বছরে ৭৬টি ওয়ানডে সিরিজ খেলেছে দলটি। আফগানিস্তানের বিপক্ষে চলমান সিরিজটি বাংলাদেশের ৭৭তম। শুক্রবার আফগানদের হারিয়ে বাংলাদেশ ২৯তম শিরোপার স্বাদ পেলো। আগের ২৮ সিরিজের মধ্যে প্রতিপক্ষকে ১৫ বার হোয়াইটওয়াশের লজ্জা দিতে পেরেছে বাংলাদেশ। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি আফগানিস্তানকে শেষ ম্যাচে হারাতে পারলে সংখ্যাটা বেড়ে দাঁড়াবে ১৬।