মঙ্গলবার   ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   ফাল্গুন ১৫ ১৪৩০

সোনারগাঁয়ে স্পিনিং মিল শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ

প্রকাশিত: ১২ মার্চ ২০১৭   আপডেট: ১২ মার্চ ২০১৭

যুগের চিন্তা ২৪ ডটকম (সোনারগাঁ) : বকেয়া বেতন ও বিনা নোটিশে কারখানা বন্ধের প্রতিবাদে সোনারগাঁয়ের মদনপুর-জয়দেবপুর (বাইপাস) সড়কের জামপুর মরিষটেক এলাকায় সড়ক অবরোধ করেছে বি আর স্পিনিং মিলের শ্রমিককরা। রোববার বেলা ১২টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত সড়কে গাছের গুড়ি ফেলে যান চলাচল বন্ধ করে দিয়ে শ্রমিকরা বিক্ষোভ মিছিল করে। এসময় রাস্তার উভয় পাশের যান চলাচল বন্ধ হয়ে ১০ কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়। ভোগান্তিতে পড়ে যাত্রীরা। খবর পেয়ে সোনারগাঁ থানা পুলিশ ও কাচঁপুর শিল্পাঞ্চল পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে বকেয়া বেতন পরিশোধ করার আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা অবরোধ তুলে নেয়। এদিকে শ্রমিকরা বলছে তাদের ৫ মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। অন্যদিকে বি আর স্পিনিং মিলস লিমিটেডের হিসাবরক্ষক আবুল কালাম আজাদ বলছেন, আমাদের কারখানার শ্রমিকদের বেতন প্রতি মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে পরিশোধ করা হয়। তাদের ১ মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। শ্রমিকরা জানায়, মিল কর্তৃপক্ষ গত ৫ মাসের বকেয়া বেতন দিবে বলে কালক্ষেপন করছে। এতে শ্রমকিদের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দিলে মালিক কর্তৃপক্ষ ৪ দিনে ছুটি ঘোষনা করে কারখানা বন্ধ করে দেয়। শনিবার কারখানায় কাজ করতে এসে দেখে কারখানায় তারা। বেতন না পাওয়ায় বাসা ভাড়া ও সংসার চালাতে গিয়ে দোকান বাকিতে তারা ঋনগ্রস্থ হয়ে পড়েছে। বকেয়া বেতনের কথা বললেই মালিকের লোকেরা তাদের সাথে অসদাচরন করে। এ পরিস্থিতিতে শ্রমকিরা বকেয়া বেতন ও কারখানা খুলে দেয়ার দাবিতেত বাধ্য হয়ে রাস্তায় আন্দোলনে নেমেছে। দুপুর ২টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে বকেয়া বেতন পরিশোধের আশ্বাস দিলে তারা অবরোধ তুলে নেয়। বি আর স্পিনিং মিলস লিমিটেডের হিসাবরক্ষক আবুল কালাম আজাদ বলেন, আমাদের কারখানার শ্রমিকদের বেতন প্রতি মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে পরিশোধ করা হয়। তাদের ১ মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। কারখানা কিছুদিনের জন্য বন্ধ রয়েছে। যতদিন কারখানা বন্ধ থাকবে শ্রমিকদের হাজিরা ধরা হবে। সময়মত তাদের বেতন পরিশোধ করা হবে। নারায়ণগঞ্জ-৪ কাঁচপুর শিল্পাঞ্চল পুলিশের এএসআই দিপক জানান, বকেয়া বেতন ও মিল খুলে দেয়ার দাবিতে শ্রমিকরা রাস্তায় অবস্থান নেয়। এতে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। কারখানায় কোন মালিক পক্ষেও কোন লোক ছিল না। কর্তৃপক্ষের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করে বেতন পরিশোধের আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা অবরোধ তুলে নেয়।
এই বিভাগের আরো খবর