শনিবার   ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ১০ ১৪২৬   ২৭ জমাদিউস সানি ১৪৪১

 বিজয়ী হলে ৮ তলা ভবনের কাজ শেষ করবো : মোহসীন মিয়া 

প্রকাশিত: ১৫ জানুয়ারি ২০২০  

যুগের চিন্তা রিপোর্ট : ‘এবার বিজয়ী হলে ডিজিটাল বার ভবন নির্মাণের কাজ শেষ করবেন’ বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের সভাপতি প্রার্থী এড.মুহাম্মদ মোহসীন মিয়া। তিনি বলেন, এই বারভবন নির্মাণে আইনজীবীদের কাছ থেকে কোন টাকা নেয়া হয়নি। সবটাকা সেলিম ওসমান দিয়েছেন।

 

তিনি বলেছেন একটি পুরো ভবন তৈরি করে দেবেন। বিজয়ী হলে ভবনের বাকি কাজ বর্তমান সভাপতি এড.হাসান ফেরদৌস জুয়েলকে নিয়েই ৮ তলা ভবনের কাজ শেষ করবো। বুধবার (১৫ জানুয়ারি) বিকেলে আদালতপাড়ায় নির্বাচন কমিশনে সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের ১৭ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিলের পর তিনি এসব কথা বলেন। 


জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক মাসুদুর রউফ বলেন, কুচক্রী মহল নানা অবান্তর বক্তব্য এনেছে। তাদের বক্তব্য হাস্যকর, উন্নয়নকে ব্যাহত করার জন্য তারা এসব বক্তব্য এনেছে। উন্নয়নের ধারবাহিকতা রোধ করতে যারা ষড়যন্ত্র করে তারাও মনোনয়নপত্র দাখিল করেছে। আইনজীবীরা আমাদের সাথে আছে। তারা উন্নয়নের পক্ষে।  


সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের মনোয়ন বোর্ডের সদস্য সচিব ও পিপি এড.ওয়াজেদ আলী খোকন বলেন, যে বিশাল বার ভবন হচ্ছে তা মোহসীনকে বিজয়ী করলে সম্পন্ন হবে। প্রত্যেকে প্রত্যেকের জায়গা থেকে সহযোগিতা করবেন। যারা বিচ্ছিন্নভাবে আওয়ামী লীগের নাম ব্যবহার করে নির্বাচন করতে চায় তারা বিজয়ী হবেনা। 
আইনজীবী সমিতির বর্তমান সভাপতি এড.হাসান ফেরদৌস জুয়েল বলেন, ৭ মাসে একতলা ভবন দাঁড় করাতে পারলে এবার এই প্যানেল বিজয়ী হলে বাকি ১ বছরে ৪ তলা ভবনের কাজ শেষ হবে।   


এরআগে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষসময়ের একেবারে শেষপর্যায়ে এড. মোহসীন মিয়াকে সভাপতি এবং এড.মাহবুবুর রহমানকে সেক্রেটারি করে সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের পক্ষ থেকে ১৭ জনের মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। সিনিয়র সহসভাপতি হিসেবে এড.বিদ্যুত কুমার সাহা, সহসভাপতি তাজুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক বরুণ চন্দ্র দে, কোষাধ্যক্ষ এড.মনিরুজ্জামান কাজল, আপ্যায়ন সম্পাদক হিসেবে এড.আবুল বাশার রুবেল, লাইব্রেরী সম্পাদক হিসেবে এড.মাহমুদুল হক মমিন, ক্রীড়া সম্পাদক হিসেবে এড.মো.রাশেদ ভূঁইয়া, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পদে এড.ফাহমিদা আক্তার সিমী, সমাজসেবা সম্পাদক পদে হাসিবুল হাসান রনি, আইন ও মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক পদে নুসরাত জাহান তানিয়া, কার্যকরী সদস্য হিসেবে মো.আসাদুল্লাহ সাগর, দেলোয়ার হোসেন সুজন, এড. মো.কামরুল হাসান, এড.কামরুন নেসা, এড.মো.আজিম ভূঁইয়া মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। মনোনয়ন দাখিলের পর তারা আদালতপাড়ায় মিছিল ও স্লোগান ধরেন। পরে নবনির্মিতবারভবনের সামনে গিয়ে প্যানেলের প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন। 


প্রসঙ্গত, ৯ জানুয়ারি আইনজীবী সমিতির এজিএমে প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে আখতার হোসেনের নাম ঘোষণার পর ত্রিধাবিভক্ত হয়ে পড়েন আইনজীবীরা।
 

এই বিভাগের আরো খবর