তালেবানের সঙ্গে বৈঠকের পর অগ্রগতির কথা জানালো যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশিত: ১৩:৪১, ১৩ অক্টোবর ২০২১

তালেবানের সঙ্গে বৈঠকের পর অগ্রগতির কথা জানালো যুক্তরাষ্ট্র

আফগানিস্তানের শাসক গোষ্ঠী তালেবানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সাম্প্রতিক বৈঠকের পর বেশ কিছু বিষয়ে অগ্রগতি হয়েছে। মঙ্গলবার এমন মন্তব্য করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র নেড প্রাইস। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম সিএনএন।

২০২১ সালের ৯ অক্টোবর কাতারের রাজধানী দোহায় তালেবান প্রতিনিধিদের সঙ্গে মার্কিন কর্মকর্তাদের বৈঠক শুরু হয়। আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর উভয় পক্ষের মধ্যে এটিই প্রথম কোনও সরাসরি বৈঠক। দুই দিনব্যাপী বৈঠক শেষে আফগান প্রতিনিধি দল জানায়, আলোচনা ইতিবাচকভাবে শেষ হয়েছে। তাদের প্রত্যাশা, এর মাধ্যমে কাবুলের নতুন সরকারের স্বীকৃতির পথও খুলে যাবে। শুধু যুক্তরাষ্ট্র নয়, বরং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের স্বীকৃতির পথও উন্মুক্ত হবে। ওয়াশিংটনের  পক্ষ থেকেও জানানো হয়, দোহায় অনুষ্ঠিত ওই আলোচনা ছিল স্পষ্ট ও পেশাদার।

রবিবার উভয় পক্ষের বৈঠক শেষ হওয়ার পর মঙ্গলবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র। তিনি বলেন, মানবিক সহায়তার বিষয়ে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে। সেখানে সহায়তার বিষয়ে অন্তত একটি ঐকমত্যে পৌঁছানোর আকাঙ্ক্ষা ছিল।

দোহায় অনুষ্ঠিত ওই আলোচনায় আফগানিস্তানে মানবিক ত্রাণ পাঠাতে সম্মত হয় যুক্তরাষ্ট্র। বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, তালেবানের হাতে সরাসরি ত্রাণসামগ্রী তুলে দেবে না ওয়াশিংটন। বরং মানবিক সহায়তা যাদের প্রাপ্য তাদের কাছে স্বচ্ছতার সঙ্গে এসব সামগ্রী পৌঁছে দেওয়ার কাজে দাতব্য সংগঠনগুলোকে সহযোগিতা করবে কাবুলের নতুন প্রশাসন।