মিয়ানমারে বিদ্রোহীদের কাছে জান্তা সমর্থিত সশস্ত্র গোষ্ঠীর আত্মসমর্পন

প্রকাশিত: ২৩:৫০, ১৬ অক্টোবর ২০২১

আপডেট: ২৩:৫১, ১৬ অক্টোবর ২০২১

মিয়ানমারে বিদ্রোহীদের কাছে জান্তা সমর্থিত সশস্ত্র গোষ্ঠীর আত্মসমর্পন

মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর সমর্থনপুষ্ঠ সশস্ত্র গোষ্ঠী পিউ সাউ হতে’র অন্তত ৩০ সদস্য দেশটির বিদ্রোহীদের কাছে আত্মসমর্পণ করেছে। বৃহস্পতিবার ইয়াউ অঞ্চলে সেনাবাহিনীর দেওয়া অস্ত্র জমা দিয়ে তারা আত্মসমর্পণ করে। দেশটির সংবাদমাধ্যম মিয়ানমার নাউ এখবর জানিয়েছে।

ইয়াউ ডিফেন্স ফোর্স (ওয়াইডিএফ)-এর হামলার মুখে মাগওয়ায় অঞ্চলে হতিলিন টাউনশিপে গোষ্ঠীটি আত্মসমর্পণ করে। ওয়াইডিএফ’র এক কর্মকর্তা জানান, ওই গোষ্ঠীটি সেনাবাহিনীর কাছ থেকে কোনও সুরক্ষা পাচ্ছিল না। তিনি বলেন, আমরা এখনও তাদের নজরদারিতে রেখেছি। আমরা এখনও তাদের বিশ্বাস করতে পারছি না। তারা কাছের গ্রাম থেকে এসেছে।


১ ফেব্রুয়ারি সামরিক অভ্যুত্থানের পর পিউ সাউ হতে গোষ্ঠী গঠিত হয় জান্তার সমর্থকদের নিয়ে। এদের লক্ষ্য ছিল সামরিক হুমকি ও সহিংসতার মাধ্যমে শাসকবিরোধী বাহিনীকে দমন করা। এই গোষ্ঠীর পক্ষ থেকে সাগাইং ও মান্দালয়ে বেসামরিক ব্যক্তিদের হত্যার হুমকি দেওয়অ হয়েছে।

ওয়াইডিএফ জানায়, ই্য়াউ অঞ্চলে যারা আত্মসমর্পণ করেছে তারা জনগণের পক্ষে দাঁড়াতে অঙ্গীকারপত্রে স্বাক্ষর করেছে।র বিবার ওয়াইডিএফ যোদ্ধারা গোষ্ঠীটির সদস্যদের অস্ত্র বহনের সময় বাধা দেয়। এতে গোষ্ঠীর এক সদস্য নিহত হয় ও ২০টি অস্ত্র জব্দ করে ওয়াইডিএফ।

অবশ্য ১৫ সেপ্টেম্বর এক সংবাদ সম্মেলনে সামরিক সরকারের মুখপাত্র ঝাউ মিন তুন দাবি করেছেন, সেনাবাহিনী পিউ সাউ হতে গোষ্ঠী গঠন করেনি এবং গোষ্ঠীটি তাদের কাছ থেকে প্রশিক্ষণ ও অস্ত্র পায়নি।