শপথ নিলেন না রুবেল-মৌসুমীরা, যা বললেন মিশা

প্রকাশিত: ২১:৪৯, ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২

শপথ নিলেন না রুবেল-মৌসুমীরা, যা বললেন মিশা

নিত্যনতুন ঘটনা মানেই যেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি। মাত্রই শেষ হলো নির্বাচনে বিজয়ী সদস্যদের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান। আর সেখানে নতুন সংযোজন- এটাকে বয়কট করেছে মিশা সওগাদর-জায়েদ খান প্যানেল থেকে বিজয়ীরা। অংশ নেননি শপথ অনুষ্ঠানে। 

আসেননি জায়েদ খান, ডিপজল, রুবেল, মৌসুমীসহ অন্যরা। শুধু তাদের তাদের প্যানেলের নাদির এতে অংশ নেন। যিনি কার্যকরী সদস্য চুন্নুর প্রার্থিতা বাতিল হওয়ায় আপিল বোর্ডের নির্দেশে জয়ী হন। তবে এতে চমক সৃষ্টি করে হাজির হয়েছিলেন সেই প্যানেলের প্রধান মিশা সওদাগর। সাবেক সভাপতি হিসেবে তিনিই নবনির্বাচিত সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চনকে শপথ বাক্য পড়ান। পরে ইলিয়াস কাঞ্চন সাধারণ সম্পাদক নিপুণসহ নতুন কমিটির ২০ জনকে শপথ করান। অনুষ্ঠান শেষে মিশা নিজ থেকেই সবাইকে এক হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, ‘আমি বরাবরই বলি, এটা মালাবদলের পালা। তাই পেছনের দিকে আমরা না তাকাই। আশা করি, আগামীতে সুন্দর শিল্পী সমিতি গড়ে উঠবে। আমাদের প্রাণপ্রিয় বড় ভাই ইলিয়াস কাঞ্চন দায়িত্ব নিয়েছেন। আমি তাকে অনুরোধ করবো, সবাইকে নিয়ে এমন কাজ করবেন যেন কোনও ব্যারিয়ার না থাকে। তিনি আলোকিত মানুষ, তার আলোয় উদ্ভাসিত হোক সবকিছু।’ এদিকে জায়েদ খানের প্যানেলের কেউ উপস্থিত না হওয়ায় এফডিসিতে গুঞ্জন ভেসে বেড়াচ্ছে। কেউ কেউ বলছেন, মামলা করবেন জায়েদ। অবশ্য এই নায়কের দাবিও সেটা। অন্য পক্ষ বলছে, জায়েদ নতুন করে শপথের আয়োজন করতে যাচ্ছেন। যার ফলে শিল্পী সমিতির এই শপথ এখন মুখরোচক সূচিতে পরিণত হয়েছে। অন্যদিকে, এই শপথের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২০২৪ মেয়াদের দায়িত্ব বুঝে নিলেন নবনির্বাচিতরা। আজ (৬ ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৫টা ৪০ মিনিটে চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনের (বিএফডিসি) খোলা প্রাঙ্গণে এ আয়োজনটি হয়।