ভারতে পাচার হওয়ার আড়াই বছর পর দেশে ফিরলো মেয়েটি

প্রকাশিত: ২১:৫৪, ২২ অক্টোবর ২০২১

ভারতে পাচার হওয়ার আড়াই বছর পর দেশে ফিরলো মেয়েটি

বাংলাদেশ থেকে পাচার হয়ে যাওয়া রুপা আক্তারকে (২৭) আড়াই বছর পর বেনাপোল দিয়ে ফেরত পাঠিয়েছে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ। শুক্রবার (২২ অক্টোবর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তিনি ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে ঢুকেছেন। পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ তাকে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ারের যশোর শাখার জ্যেষ্ঠ প্রোগ্রাম অফিসার এবিএম মুহিত হোসেন জানান, রুপা ঢাকার ধামরাই এলাকার মঙ্গল ব্যাপারীর মেয়ে। ভালো কাজের প্রলোভন দেখিয়ে সীমান্তের অবৈধ পথে তাকে ভারতে পাচার করা হয়েছিল। পাচারকারীরা মেয়েটিকে জোরপূর্বক ঝুঁকিপূর্ণ কাজে ব্যবহার করে। সেখানকার পুলিশ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে আদালতে পাঠায়।

জানা গেছে, ভারতের উড়িষ্যার শান্তি সদন নামে একটি সরকারি এনজিও সংস্থা রুপাকে আদালত থেকে ছাড়িয়ে নিজেদের আশ্রয়ে রাখে। দুই দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আইনি প্রক্রিয়া শেষে বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে তাকে দেশে ফেরার সুযোগ দেওয়া হলো।

বেনাপোল ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজু আহমেদ বলেন, ইমিগ্রেশনে কাগজপত্রের আনুষ্ঠানিকতা শেষে রুপাকে বেনাপোল পোর্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়। সেখান থেকে আইনি সহয়তা দিতে জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার নামে একটি এনজিও সংস্থা তাকে পরিবারের কাছে নিয়ে যাবে বলে জানা গেছে।