পঞ্চগড়ে চায়ের অকশন মার্কেট স্থাপনের পরিকল্পনা

প্রকাশিত: ১৮:২৫, ১৭ অক্টোবর ২০২১

পঞ্চগড়ে চায়ের অকশন মার্কেট স্থাপনের পরিকল্পনা

সরকার পঞ্চগড়ে চায়ের অকশন মার্কেট স্থাপনের পরিকল্পনা করছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো. আশরাফুল ইসলাম। রবিবার (১৭ অক্টোবর) তেঁতুলিয়া উপজেলার চায়ের গ্রাম পেদিয়াগজে ক্ষুদ্র চা-চাষিদের জন্য হাতে-কলমে বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে চা আবাদ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক কর্মশালায় এসব কথা বলেন তিনি। 

উন্নত জ্ঞান উন্নত চা প্রতিপাদ্য নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় ‘ক্যামেলিয়া খোলা আকাশ স্কুল’ শিরোনামে এই প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করছে বাংলাদেশ চা বোর্ডের পঞ্চগড় আঞ্চলিক কার্যালয়। 

কর্মশালায় চা বোর্ডের চেয়ারম্যান বলেন, ‘আগামী ২০৩০ সালের মধ্যে দেশে ১৪০ মিলিয়ন মেট্রিক টন চা উৎপাদনের পরিকল্পনা করেছে সরকার। দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রফতানির জন্য নানা উদ্যোগও নেওয়া হয়েছে। দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম চা অঞ্চল পঞ্চগড়ে অকশন মার্কেট স্থাপনের পরিকল্পনাও করছে সরকার। চা উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য ক্ষুদ্র চা-চাষিদের সব ধরনের সহযোগিতা দেওয়া হচ্ছে। তাদের প্রশিক্ষণের আওতায়ও আনা হয়েছে।’

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আব্দুল মান্নানের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশ চা বোর্ডের পরিচালক ড. এ কে এম রফিকুল হক, পঞ্চগড় স্মল টি গার্ডেন অনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আমিরুল ইসলাম খোকন, বাংলাদেশ চা বোর্ড পঞ্চগড় আঞ্চলিক কার্যালয়ের প্রকল্প পরিচালক এবং মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. শামিম আল মামুন, উন্নয়ন কর্মকর্তা আমির হোসেন, পেদিয়াগজ গ্রাম চা সমিতির সাধারণ সম্পাদক ঈমান আলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 
কর্মশালায় শতাধিক চা-চাষিকে নিয়ে দিনব্যাপী হাতে-কলমে চা চাষ সম্পর্কে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। পরে পঞ্চগড় সার্কিট হাউজে চা-চাষিদের সঙ্গে এক মত বিনিময় অনুষ্ঠানে যোগ দেন তিনি।