নবম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ে করতে এসে কারাগারে

প্রকাশিত: ১৮:৪৮, ৯ অক্টোবর ২০২১

নবম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ে করতে এসে কারাগারে

বরগুনায় আমতলী উপজেলায় নবম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ে করতে যাওয়া মো. জহিরুল ইসলামকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। শুক্রবার (৮ অক্টোবর) রাতে আমতলী উপজেলার আরপাঙ্গাশীয়া ইউনিয়নের চরকগাছিয়ায় কনের বাড়িতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এ কারাদণ্ড দেন উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. নাজমুল ইসলাম।

জানা গেছে, আমতলী উপজেলার চরকগাছিয়া গ্রামের নবম শ্রেণি পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীর সঙ্গে তালতলী উপজেলার ছোটবগী গ্রামের বারেক হাওলাদারের ছেলে জহিরুল ইসলামের বিয়ের আয়োজন করে পরিবার। খবর পেয়ে আমতলী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. নাজমুল ইসলাম কনের বাড়িতে উপস্থিত হন। এ সময় কনে পক্ষের লোকজন পালিয়ে যায়। কিন্তু বর জহিরুল ইসলামকে স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতে সোপর্দ করে।

ভ্রাম্যমাণ আদালত জহিরুল ইসলামকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন। আমতলী থানার ওসি মো. শাহ আলম হাওলাদার বলেন, ‘শনিবার (৯ অক্টোবর) তিন মাসের দণ্ডপ্রাপ্ত জহিরুল ইসলামকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।’

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক নাজমুল ইসলাম বলেন, ‘বাল্যবিয়ে দেবে না মর্মে কনের পক্ষ থেকে মুচলেকা রেখে বর জহিরুল ইসলামকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে।’