স্কুল মাঠ দখল করে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির ধান চাষ

প্রকাশিত: ১৫:১৫, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

স্কুল মাঠ দখল করে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির ধান চাষ

কুষ্টিয়ার মিরপুরে স্কুলের খেলার মাঠ দখল করে প্রতিষ্ঠানটির ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি রুহুল আজম কেরুর বিরুদ্ধে ধান চাষের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার কুর্শা ইউনিয়নের রামনগর পশ্চিমপাড়া বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ দখল করে এমনটা ঘটানো হয়েছে বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় গ্রামবাসী ও কোমলমতি শিক্ষার্থীরা ক্ষোভ জানিয়েছেন। বিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, স্কুলটির জমি সরকারি দলিলকৃত সম্পত্তি। সরকারিকরণের চিঠিও এসেছিল। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস থেকেও কর্মকর্তারা পরিদর্শন করেছেন। কিন্তু করোনার কারণে সরকারি নিদের্শনায় দীর্ঘদিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল। এ সুযোগে প্রতিষ্ঠানটির ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি রুহুল আজম কেরু স্কুল মাঠে ধান চাষ করেছেন। কমিটির সভাপতির এমন কাণ্ডে হতবাক প্রতিষ্ঠানটির অন্য শিক্ষকরাও। শিক্ষার্থীরা বলছে, আগে স্কুলমাঠে ফুটবলসহ বিভিন্ন ধরনের খেলাধুলা করতাম। স্কুলের সভাপতি রুহুল আজম কেরু ধান চাষ করায় খেলাধুলা বন্ধ হয়ে গেছে। আমরা খেলাধুলার মাঠ আবার আগের মতো ফিরে পেতে চাই। স্থানীয় রামনগর পশ্চিমপাড়া বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক উজ্জ্বল বলেন, স্কুলটির জমি সরকারি দলিলকৃত সম্পত্তি। প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার মান ভালো ছিল। বিদ্যালয় মাঠে ধান চাষ ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি কেন যে করছেন, এটা আমার জানা নেই।  এদিকে স্কুল মাঠে ধান চাষের বিষয়টি স্বীকার করেছেন ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি রুহুল আজম কেরু। তিনি বলেন, ‘এত বড় একটি জায়গা ফেলে রাখবো কী করে, তাই ধান চাষ করেছি।’ মিরপুর উপজেলার সচেতন নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা নজরুল করিম বলেন, বিষয়টি দুঃখজনক। প্রতিষ্ঠানটির ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির বিরুদ্ধে দ্রুত আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানাচ্ছি। এ বিষয়ে জানতে স্থানীয় কুর্শা ইউপি চেয়ারম্যান মো. ওমর আলীর মোবাইলফোনে একাধিকবার কল দিয়েও কথা বলা সম্ভব হয়নি।  মিরপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মাসুদ রানা বলেন, ওই স্কুলটি আমাদের তালিকাভূক্ত প্রতিষ্ঠান নয়। শিক্ষা অফিস থেকে খোঁজ নিতে গত বৃহস্পতিবার লোক পাঠানো হয়েছিলো। এ বিষয়ে পরে বিস্তারিত জানাতে পারবো। এ বিষয়ে জানতে চাইলে মিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) লিংকন বিশ্বাস বলেন, এমন কাজের সঙ্গে জড়িতদের ছাড় দেওয়া হবে না। দ্রুত ওই বিদ্যালয়ের মাঠে খেলার পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।