বোমাকে বল মনে করে খেলতে গিয়ে বিস্ফোরণ, ৪ শিশু দগ্ধ

প্রকাশিত: ২২:২৬, ২ জানুয়ারি ২০২২

বোমাকে বল মনে করে খেলতে গিয়ে বিস্ফোরণ, ৪ শিশু দগ্ধ

শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার জপসা ইউনিয়নের সবজি বাগানে কুড়িয়ে পাওয়া বোমা নিয়ে খেলতে গিয়ে বিস্ফোরণে চার শিশু দগ্ধ হয়েছে। তাদের মধ্যে দুজনের অবস্থা গুরুতর। রবিবার (২ জানুয়ারি) দুপুরে ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের মাইজপাড়া গুচ্ছগ্রাম সুজন মণ্ডলের বাড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে নড়িয়া সার্কেল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এস এম মিজানুর রহমান ও ডিবির ওসি সাইফুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ঘটনায় আহত শিশুরা হলো– মাইজপাড়া গুচ্ছ গ্রাম এলাকার আফজাল হাওলাদারের ছেলে দিদার হাওলাদার (৫), হানিফ হাওলাদারের ছেলে রনি হাওলাদার (৫), রতন বেপারির ছেলে সায়েম বেপারি (৫) ও হোসেন ঢালীর ছেলে জাবেদ ঢালী (৫)। তাদের মধ্যে দুজনকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকি দুজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বোমাটি বিকট শব্দে বিস্ফোরিত হয়। গ্রামবাসী ঘটনাস্থলে এসে শিশুদের গুরুতর আহত অবস্থায় দেখতে পায়। পরে তাদের হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়।

২

আহতদের দেখতে এলাকাবাসীর ভিড়ওই সবজি বাগানের মালিক সুজন মণ্ডল জানান, কেউ শত্রুতা করে এই কাজ করেছে। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কেউ এই বোমা রাখতে পারে। জপসা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী শওকত হোসেন বয়াতি বলেন, ‘কারা বোমা রেখেছে তা জানা যায়নি। ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের চিকিৎসার জন্য টাকা দিয়েছি।’ এ বিষয়ে নড়িয়া সার্কেল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এস এম মিজানুর রহমান জানান, জপসায় সবজি বাগান থেকে একটি পরিত্যক্ত বোমা বাচ্চারা খেলার বল মনে করে খেলছিল। বোমাটির পেঁচানো টেপ খুলতে গেলে বিস্ফোরণ ঘটে। এতে দুটি বাচ্চার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ক্ষত হয়। ঘটনার আলামত উদ্ধার করা হয়েছে। শিশু দুটিকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল থেকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।