সহকর্মীকে মেরে বরখাস্ত পাউবোর প্রকৌশলী

প্রকাশিত: ১৬:০০, ২৫ নভেম্বর ২০২১

সহকর্মীকে মেরে বরখাস্ত পাউবোর প্রকৌশলী

অধীনস্ত কর্মকর্তার সঙ্গে অসদাচরণ ও শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে রাজবাড়ী পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল আহাদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বুধবার (২৪ নভেম্বর) পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-সচিব (প্রশাসন) সৈয়দ মাহবুবুল হক স্বাক্ষরিত অফিস আদেশে তাকে বরখাস্ত করা হয়। আদেশ বলা হয়েছে, আব্দুল আহাদকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে পানি উন্নয়ন বোর্ডের (বাপাউবো) প্রশিক্ষণ ও মানবসম্পদ উন্নয়ন বিভাগের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলীর দফতরে সংযুক্ত করা হয়েছে। একই আদেশে ফরিদপুর পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলীকে রাজবাড়ী পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলীর চলতি দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে।’ জানা গেছে, গত ২৩ নভেম্বর বিকালে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি পাউবোর মৃগী পওর শাখার উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. রনিকে নিজ অফিস কক্ষে ডেকে মারধর করেন আব্দুল আহাদ। ঘটনার পরপরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। উপ-সহকারী প্রকৌশলী রনি ওই দিনই পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক বরাবর আব্দুল আহাদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন। এরপর আব্দুল আহাদকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়। এ বিষয়ে আব্দুল আহাদ জানান, ‘রাজবাড়ীতে এই মৌসুমে অনেক নদী ভাঙন হয়েছে। বিষয়গুলো নিয়ে আমি অনেক চাপে রয়েছি। সারাদিন কাজ করি। আমার অধীনস্তদের কোনও কাজ দিলে সময়মতো করে না। তাদের আমি একটা জায়গায় পাঠিয়েছিলাম, কিন্তু তারা সেখানে যায়নি। তাদেরকে বারবার বলেছি, কিন্তু তারা আমার নির্দেশ শোনেনি। দেখেন আমিও তো মানুষ, আমারও ধৈর্য্যের সীমা আছে। আমি রাগকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারিনি।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমি অন্যায় করেছি। তবে তারা যে কাজগুলো করেছে, সেটা ঠিক না। তারা সিসিটিভি ফুটেজের আগে-পরের দৃশ্যগুলো কেটে ধস্তাধস্তির দৃশ্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল করেছে। আমি এখন পরিস্থিতির স্বীকার হয়ে গেছি। আমার ভাগ্যে ছিল এমন, তাই হয়ছে।’