শুক্রবার   ১৮ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৩ ১৪২৬   ১৮ সফর ১৪৪১

সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন কার্যালয় গুড়িয়ে দিলেন দুই শীর্ষ নেতা

প্রকাশিত: ১১ জুলাই ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) : পরিবহনে চাঁদাবাজির অভিযোগ উঠায় নারায়ণগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন (রেজি: নং-ঢাকা-২৩০২) কার্যালয় গুড়িয়ে দিয়েছেন সংগঠনের সভাপতি আব্দুস সামাদ বেপারী ও সাধারণ সম্পাদক এস এম মাসুদ। 

এর আগে তারা ওই সংগঠন থেকে পদত্যাগ করেন। বৃহস্পতিবার সকালে পদত্যগ করা দুই শীর্ষ নেতা উপস্থিত থেকে চিটাগাং রোডের সৌদি বাংলা শপিং কমপ্লেক্সের পাশে অবস্থিত ওই কার্যালয়টি ভেঙ্গে দেন।

জানা যায়, নারায়ণগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন (রেজি: নং-ঢাকা-২৩০২) শিমরাইল-চিটাগাংরোড পরিচালনা উপ-শ্রমিক কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ছিলেন যথাক্রমে সামাদ বেপারী ও এসএম মাসুদ। সম্প্রতি সংগঠনটির বিরুদ্ধে পরিবহনে চাঁদাবাজির অভিযোগ উঠে। 

ফলে নারায়ণগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন সভাপতি বরাবর তারা তাদের পদত্যাগ পত্র জমা দেন। পরে পদত্যাগ পত্র গ্রহন করে পর্যায়ক্রমে সামাদ বেপারী ও এস এম মাসুদকে অব্যাহতি দিয়েছেন জেলার সভাপতি মো: সেলিম। 

এরমধ্যে আবদুস সামাদ বেপারীকে গত ২২ জুন ও এসএম মাসুদ রানাকে বুধবার (১০ জুলাই) সংগঠন থেকে অব্যাহতি প্রদান করা হয়। অব্যাহতি পত্রের অনুলিপি নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার, র‌্যাব-১১ এর অধিনায়ক ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ বরাবর প্রেরণ করা হয়েছে। 

আবদুস সামাদ বেপারী  ও এস এম মাসুদ রানা দুজনই শারীরিক অসুস্থ্যতা এবং ব্যবসায়ীক ব্যস্ততার কারণ দেখিয়ে সংগঠন থেকে অব্যাহতি গ্রহন করেন বলে জানা যায়।

আব্দুস সামাদ বেপারী সিদ্ধিরগঞ্জ-আদমজী আঞ্চলিক শ্রমিকলীগের সভাপতি হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া এস এম মাসুদ জাসদের সিদ্ধিরগঞ্জ থানা সভাপতি।

আব্দুস সামাদ বেপারীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, হজ করার পর থেকেই আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি আর এই পরিবহন সংগঠনের সাথে থাকবো না। 

কারণ শ্রমিক-মালিকদের কল্যানে সংগঠনটি প্রতিষ্ঠিত হলেও সংগঠনের বিরুদ্ধে পরিবহনে চাঁদাবাজির অভিযোগ উঠে। 

তাই আজকের পর থেকে কেউ যদি চাঁদাবাজি করে এর দায়দায়িত্ব আমরা নিবো না। এবং আমাদের দুইজনের নাম ব্যবহার করে কোন চাঁদাবাজি করে তাদের আটক করে আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যের কাছে সোপর্দ করার অনুরোধ জানাচ্ছি।
 

এই বিভাগের আরো খবর