বুধবার   ১৭ জুলাই ২০১৯   শ্রাবণ ২ ১৪২৬   ১৪ জ্বিলকদ ১৪৪০

স্বপন হত্যা মামলার সাক্ষ্য দিলেন ম্যাজিস্ট্রেট

প্রকাশিত: ২৫ জুন ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) : চাঞ্চল্যকর স্বপন হত্যা মামলায় সাক্ষ্য দিলেন আরও একজন। তিনি হলেন সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো.মাহমুদুল মহসীন। মামলার সাক্ষীদের সাক্ষ্য গ্রহণের ধারাবাহিকতায় ১৫ জনের সাাক্ষ্য গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।

 

এদের মধ্যে উল্লেখ্যযোগ্য সাক্ষীরা হলেন, সহকারী উপ-পরিদর্শক সেলিম রেজা ও এজাজুল হক, অজিৎ কুমার সাহা, বন্ধু বিশ্বজিৎ সাহা, পরিচিত নয়ন সাহা, বিকাশ চন্দ্র সাহা, কালু মাঝি ও অমূল্য চন্দ্র সাহা।

 

এ হত্যা মামলায় এ পর্যন্ত সর্বমোট ১৬ জন সাক্ষীর মধ্যে ১৫ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ সম্পন্ন হলো। মঙ্গলবার (২৫ জুন) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ মো.আনিসুর রহমানের আদালতে এ সাক্ষ্য গ্রহণ হয়।

 

বাদী পক্ষের আইনজীবি সরকারি পিপি এড. ওয়াজেদ আলী খোকন জানান, আলোচিত স্বপন হত্যা মামলায় আজ আরও দুইজন সাক্ষ্য দেন। এই মামলাটি নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দাায়রা জজ মো.আনিসুর রহমান গুরুত্বসহকারে দেখছেন।


এ সময় বাদী পক্ষের আইনজীবি সরকারি পিপি এডভোকেট এস.এম.ওয়াজেদ আলী খোকন এর সাথে সহযোগী আইনজীবি ছিলেন, রাষ্ট্র পক্ষের সহায়ক এড.মৃণাল কান্তি দত্ত বাপ্পি, এড.জয়ন্ত কুমার ঘোষ, এড. মো.মিনহাজ ইসলাম।

 

এছাড়াও মামলার সাক্ষ্য গ্রহণকালে বাদী পক্ষের হয়ে আদালতে উপস্থিত ছিলেন, নিহত স্বপনের ভাই অজিত কুমার সাহা। এসময় অজিত কুমার সাহা ভাইয়ের হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানায়।

 

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ২৭ অক্টোরব সন্ধ্যায় তার বান্ধবী রত্না রানী চক্রবর্তীকে দিয়ে মোবাইল ফোনে নগরীর মাসদাইর বাসায় ডেকে আনা হয় স্বপন কুমার সাহাকে। পরে জুসের সাথে ঘুমের বড়ি মিশিয়ে খাইয়ে শিল পুতা দিয়ে মাথায় আঘাত করে হত্যা করে স্বপনকে।  হত্যার পর লাশ বাথরুমের ভেতরে নিয়ে সাত টুকরা করে বাজারের ব্যাগে ভরি করে শীতলক্ষ্যা নদীতে ফেলে দেওয়া হয়।

এই বিভাগের আরো খবর