বুধবার   ১৩ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ২৮ ১৪২৬   ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

সোনারগাঁয়ে আবারো ভুল চিকিৎসায় রোগী মৃত্যুর অভিযোগ

প্রকাশিত: ১৭ অক্টোবর ২০১৯  

সোনারগাঁ (যুগের চিন্তা ২৪) : সোনারগাঁয়ের মোগরাপাড়া চৌরাস্তা এলাকায় পুরাতন সেবা জেনারেল হাসপাতাল নামে এ ক্লিনিকে চিকিৎসকের অবহেলায় রোগী মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। পিত্তথলিতে ব্যথা নিয়ে বিকেলে ভর্তি হওয়া রোগী মালেকা আক্তারের মৃত্যু হয়। 

পরে মালেকা আক্তারের ক্ষুব্ধ স্বজনরা হাসপাতাল ভাংচুর না করলেও ডাক্তারের ভুল চিকিৎসাকে দায়ি করে হাসপাতালটি অবরোধ করে রাখে। এসময় হাসপাতালের সামনে উত্তেজনা বিরাজ করে। ঘটনার খবর পেয়ে সোনারগাঁ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। 

পরিস্থিতি শান্ত রাখতে হাসপাতাল এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এর আগেও সোনারগাঁয়ের দুটি হাসপাতালে দুজন রোগী মারা যাওয়ার অভিযোগ রয়েছে। পরে অভিযান চালিয়ে ৬টি হাসপাতাল সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয় সিভিল সার্জন ডা.ইমতিয়াজ। 

জানা যায়, উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের দমদমা গ্রামের রুহুল আমিনের স্ত্রী মালেকা আক্তার পিত্তথলিতে পাথর অপসারণের জন্য গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে মোগরাপাড়া চৌরাস্তার রহমত ম্যানসনের সেবা জেনারেল হাসপাতাল নামের ক্লিনিকে ভর্তি হন।  

সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জুনিয়র সার্জারি কনসাল্ট্যান্ট রিয়াজ মোর্শেদের তত্ত্ববধানে ভর্তি হওয়ার পর বিকেল তিনটার দিকে ওই রোগীর অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে যায়। রোগীর স্বজনরা রোগীর অবস্থা জানতে চাইলে অপসারিত পিত্তথলী পাথর এনে দেখিয়ে রোগী ভাল আছেন বলে জানান। 

এক পর্যায়ে রোগীর অবস্থার অবনতি হলে সন্ধ্যা ৭টার দিকে ওই ডাক্তার রোগীকে আইসিওতে রাখতে হবে বলে জানান স্বজনদের। ডাক্তারের কথা শুনে আতংকিত হয়ে ওই রোগীর ফুফু সাবিকা পারভীন জোরপূর্বক অপারেশন থিয়েটারে ঢুকে রোগীর মুখ দিয়ে ফনা বের হচ্ছে দেখতে পান। 

পরে রোগীকে ইকরাম নামের এক ডাক্তারের মাধ্যমে সিদ্ধিরগঞ্জ প্রি অ্যাকটিভ হাসপাতালে নিয়ে যান। ওই হাসপাতালে কর্তব্যরত ডাক্তার রোগীকে মৃত ঘোষনা করলে সঙ্গে থাকা সেবা জেনারেল হাসপাতালের ডাক্তার ইকরাম ওই রোগীকে রেখে পালিয়ে যায়। ঘটনার পর রোগীর স্বজনরা রাতে উত্তেজিত হয়ে হাসপাতালে গিয়ে ভাংচুরের চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। 

সেবা জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. দেবব্রত দাস জানান, অপারেশনের পর অজ্ঞান করার জন্য এন্সথ্যাসিয়ার মাত্রা কম বা বেশি হওয়ার কারনে রোগীর অবস্থা এমন হয়েছে। রোগীকে ঢাকা  মেডিকেলে রেফার করেছিলাম। পথের মধ্যে রোগী মারা যান। তবে ডাক্তার বা ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের কোন ত্রুটি নেই বলে তিনি দাবি করেন।

সেবা জেনারেল হাসপাতালের পরিচালক ড. নুরে আলম বলেন, বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক। ডাক্তারের অবহেলায় যদি রোগীর মৃত্যু হয়ে থাকে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমি সুপারিশ করবো। 

সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. হালিমা খাতুন হক বলেন, ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু খুবই দুঃখজনক। বিষয়টি তদন্ত করে ডাক্তারের দোষ পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, হাসপাতালে চিকিৎসকের অবহেলায় রোগী মৃত্যুর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এখনো কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  
 

এই বিভাগের আরো খবর