শুক্রবার   ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২২ ১৪২৬   ০৮ রবিউস সানি ১৪৪১

শিক্ষক কর্মচারী উন্নয়ণ পরিষদের সভাপতি ইব্রাহীম, সম্পাদক সোবাহান 

প্রকাশিত: ১২ জুলাই ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) : উৎসব মুখর পরিবেশের মধ্যদিয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা শিক্ষা ও শিক্ষক কর্মচারী উন্নয়ণ পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (১২ জুলাই ) শহরের খানপুর বার একাডেমী স্কুল প্রাঙ্গণে সকাল নয়টা থেকে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত এ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। সন্ধ্যায় পর ভোট গনণা শেষে প্রধান নির্বাচন কমিশনার মো.শওকত আলী নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন । 


সভাপতি পদে মুসলিম নগর কে এম উচ্চ বিদ্যালয়ের এ কে এম ইব্রাহীম তিনি বই মার্কা প্রতীক নিয়ে ৩৭৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদন্দ্বি ছিলেন বেগম রোকেয়া খন্দকার উচ্চ বিদ্যালয় সুলতানা বেগম তিনি গোলাপফুল মার্কা নিয়ে ৩০৩ ভোট ও চিন্তরঞ্জন কটন মিলস্ উচ্চ বিদ্যালয় মনি শংকর হালদার তিনি দোয়াত কলম মার্কা নিয়ে ১৭২ ভোট পেয়ে পরাজিত হন।

 


সাধারণ সম্পাদক পদে ইসদাইর রাবেয়া হোসেন উচ্চ বিদ্যালয় মো আবদুস সোবাহান  চেয়ার মার্কা প্রতীক নিয়ে ৫৪৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি ছিলেন মিজমিজি পাইনাদী রেকমদ আলী উচ্চ বিদ্যালয় মোঃ রেজাউল করিম ছাতা মার্কায় দাড়িয়ে ২৯৩ ভোট পেয়েছেন। 

 


সাংগঠনিক সম্পাদক পদ প্রার্থী  হাজী পান্দে আলী উচ্চ বিদ্যালয় আতাব উদ্দিন সরকার তিনি ফুটবল মার্কায় দাড়িয়ে ৩৯৬ ভোট পেয়েছেন তার নিকটতম প্রতিদন্দ্বি  প্রার্থী কানাই নগর সোবাহানিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মো ফিরোজুর রহমান আনারস প্রতীকে ৪৬০ ভোট পেয়ে পরাজিত হয়েছেন।

 


ক্রীড়া সম্পাদক পদে প্রার্থী হিসাবে ছিলেন সৈয়দ পুর বঙ্গবন্ধু উচ্চ বিদ্যালয়  মো. নজরুল ইসলাম তিনি আম মার্কায় প্রতীক নিয়ে ৫৪২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদন্দ্বি  প্রার্থী সিদ্ধিরগঞ্জ রেবতী মোহন উচ্চ বিদ্যালয় মো. নজরুল ইসলাম  তিনি ঘড়ি মার্কা প্রতীক নিয়ে ২৯৯ ভোট পেয়ে পরাজিত হয়েছেন ।

 


ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক পদে দেলপাড়া উচ্চ বিদ্যালয় মো জালাল উদ্দিন তিনি মোমবাতি মার্কা প্রকীত নিয়ে  ৫৩৩ ভোট পেয়ে  বিজয়ী হয়েছেণ। তার নিকটতম প্রতিদন্দ্বি প্রার্থী সফুরা খাতুন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় আমিনুল হাসান তিনি কলম মার্কা প্রতীক নিয়ে ৩১৩ ভোট পেয়ে পরাজিত হয়েছেন । 

 


প্রসঙ্গত, শিক্ষা ও শিক্ষক কর্মচারী উন্নয়ণ পরিষদ পদ সমূহ ও পদের পাশে বর্ণিত প্রার্থীগনের মনোনয়ন পত্র বাছাইয়ের পর চূড়ান্ত তালিকা ও প্রত্যাহারের তারিখ পর্যন্ত প্রত্যাহার শেষে প্রতিটি পদ ও পদের প্রার্থী সংখ্যা সমান হওয়ায় এবং কোন প্রতিদন্দ্বিতা না থাকায় তাদেরকে বিনা প্রতিদন্দ্বিতায় বেসরকারী ভাবে নির্বাচিত প্রার্থীদের নাম ঘোষনা করেন নির্বাচন কমিশনার মো. শওকত আলী।  

 

সহ সভাপতি হরিহর পাড়া উচ্চ বিদ্যালয় শিক্ষক  মো: মনির হোসেন, লক্ষী নারায়ণ কটন মিলস উ: বি:  আশিষ কুমার মজুমদার, মর্গ্যান গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ লায়লা আক্তার, কোষাধ্যক্ষ পূর্ব জালকুড়ি উচ্চ বিদ্যালয় , মো: মোশারফ হোসেন   সহ সাধারণ সম্পাদক আদর্শ বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজ শিক্ষক মো: খায়রুল ইসলাম, পাগলা উচ্চ বিদ্যালয় শিক্ষক পরিমল মানাকার, মহিলা সম্পাদক নারায়ণগঞ্জ বালিকা উচ্চ  বিদ্যালয়, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক দেওভোগ হাজী উজির আলী উঃ বিঃ সুভাস চন্দ্র দেবনাথ, শিক্ষা ও সাহিত্য সম্পাদক দাপা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় আবু জাফর, সহ কোষাধ্যক্ষ গোদনাইল উচ্চ বিদ্যালয় সুবাস চন্দ্র দেবনাথ  দপ্তর সম্পাদক কুড়ের পাড় উচ্চ বিদ্যালয়, কার্যকরী সদস্য মুক্তরকান্দি আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মো আব্দুল বারেক, মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি বিদ্যালয় আবুল কালাম আজাদ, নারায়ণগঞ্জ বার একাডেমী মো ইকবাল হোসেন, নারাণগঞ্জ হাই স্কুল এন্ড কলেজ  বিষ্ণুপদ ভট্টাচার্য, হাজী আওলাদ হোসেন উচ্চ বিদ্যালয় এ এস এম সায়েম

 


উল্লেখ্য. নির্বাচনে ১৪ টি পদে ৩৪ জন প্রার্থী অংশগ্রহণ করেন । এর মধ্যে সভপাতি  পদে ৪ জন সহসভাপতি পদে ৪ জন, সাধারণ সম্পাদক পদে ২ জন, কোষাধ্যক্ষ পদে ২ জন, সহ সাধারণ সম্পাদক পদে ২জন, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ২ জন মহিলা বিষয়ক সম্পাদক পদে ২ জন, প্রচার সম্পাদক, ক্রীড়া সম্পাদক, সাহিত্য সমম্পাদক, ধর্ম সম্পাদক, দপ্তর সম্পাদক পদে ২ জন করে সহ কোষাধ্যক্ষ পদে এবং  কার্যকরী পদে ৬ জন প্রার্থী  অংশগ্রহণ  করেছেন ।
 

এই বিভাগের আরো খবর