রোববার   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৬   ১০ রবিউস সানি ১৪৪১

শামীম ওসমানের অপেক্ষায় স্থগিত এনায়েতনগরের ৩ ওয়ার্ডের সম্মেলন

প্রকাশিত: ১৫ নভেম্বর ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪): নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমান ওমরাহ হজ্জ্বে থাকার সময় ফতুল্লা এনায়েতনগর ইউনিয়ন ৭,৮ও ৯ নং ওয়ার্ড (বৃহত্তর মাসদাইর) আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন ও কাউন্সিল অধিবেশনের সময় নির্ধারণ করা হয় আজ সেই তারিখে সম্মেলন আয়োজন করায় তা স্থগিত করা হয়েছে। 

 

শুক্রবার (৫ নভেম্বর) সকাল ১০টায় পশ্চিম মাসদাইর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে পূর্ব ঘোষিত সময় অনুয়াযী ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন ও কাউন্সিল অধিবেশনের আয়োজন করেন এনায়েতনগর ইউনিয়ন সম্মেলন পরিচালনা কমিটির আহবায়ক ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও এনায়েতনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আসাদুজ্জামান আসাদ। কিন্তু অনুষ্ঠানে আসাদ তাঁর বক্তব্যে বলেন, সকলের সম্মতিক্রমে ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন ও কাউন্সিল অধিবেশন স্থগিত করা হলো। সম্মেলন হবে, কাউন্সিলও হবে আপনাদের নেতা আপনারাই নিবার্চিত করবেন কিন্তু এমপি সাহেবের (শামীম ওসমান) উপস্থিততেই হবে।

 

সম্মেলন অনুষ্ঠানে আসাদুজ্জামান বলেন, এই তিন ওয়ার্ডের কাউন্সিলকে কেন্দ্র করে পুরো এলাকায় উৎসব মুখর পরিবেশ তৈরি হয়েছে। মাসদাইর হলো একটা শহর। সাংসদ একেএম শামীম ওসমানের বাড়ি এখানেই হওয়ায় তিনি আমাদের প্রতিবেশী। নারায়ণগঞ্জ শহরে যত আন্দোলন সংগ্রাম যাই হয়, মাসদাইর এলাকার লোকজন কিন্তু সবার আগে যায়। আমরা যখন  সম্মেলনের তারিখ ঘোষনা করি তখন এমপি সাহেব (শামীম ওসমান) ওমরাহ হজ্বে ছিলেন। যার কারণে আমরা এমপি সাহেবের সাথে যোগাযোগ করতে পারি নাই। এমপি সাহেব যখন এসে শুনলেন তখন যদি বলেন আপনারা সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করলেন; আমি তো জানলাম না। এটাতো আমার গ্রাম ও মহল্লা। আমি এই সম্মেলনে উপস্থিত থাকবো। আমাকে কইলেন না, এ সম্মেলনটা কিভাবে করবেন। এখন আপনারা বলেন কি করবো? আপনারা তো আসছেন আপনাদের নতুন নেতা নির্বাচন করতে! আর আমরাও আসছি সেই প্রস্তুতি নিয়া। এখন আপনারাই চিন্তা করেন, এখন কি করবো ? আপনারা যদি মনে করেন এমপি সাহেবের উপস্থিতে সম্মেলনটা করলে ভালো হবে তাহলে আমরা আগামীতে একটা তারিখ ঠিক করে পূনরায় সম্মেলনের তারিখটা করে আপনাদের জানাবো। 

 

তবে এব্যাপারে ভিন্নমত পোষণ করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই। তিনি বলেন, সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ হলে সেই তারিখেই সম্মেলন হওয়া উচিৎ। খুব বিশেষ কারণ ছাড়া তারিখ পরিবর্তন করা ঠিক না। 

 

এনায়েতনগরের ওই তিন ইউনিয়নের সম্মেলন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীগের বন ও পরিবেশ সম্পাদক রানু খন্দকার, ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি শহিদুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক এবিএম শহিদুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক বদরুল আলম বদু, আইন সম্পাদক এম এ সাত্তার, এনায়েতনগর ইউনিয়ন ৭,৮,৯ নং ওয়ার্ড (বৃহত্তর মাসদাইর) আওয়ামীলীগের সভাপতি মতিউর রহমান প্রধান ও সাধারণ সম্পাদক শ্রী রঞ্জিত মন্ডল, মাসদাইর পঞ্চায়াত সভাপতি শরফুদ্দিন মাদবর, এনায়েতনগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আ.রাজ্জাক মাষ্টার, সাংগঠনিক সম্পাদক কামাল উদ্দিন চৌধুরী, এনায়েতনগর ইউপি সদস্য কামরুল ইসলাম, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আশ্রাফুল ইসমাইল রাফেল প্রধান, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান রিয়াদ প্রমুখ।

এই বিভাগের আরো খবর