সোমবার   ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ১ ১৪২৬   ১৬ মুহররম ১৪৪১

শহীদ মিনারে আবারো অশ্লীলতা,কানে ধরে উঠ-বস করে পার পেলো শিক্ষার্থী

প্রকাশিত: ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) : অসামাজিক কার্যকলাপ, নানা অপরাধ ঠেকাতে এবং পবিত্রতা রক্ষার উদ্দেশ্যে গত ২ সেপ্টেম্বর চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের ফটকগুলোতে তালা মেরেছিলো পুলিশের এক উপপরিদর্শক। 


উদ্দেশ্যটি ভালোর জন্য হলেও এই ঘটনায় ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার মুখে পড়ে পুলিশ এবং সিটি করপোরেশন। এরপরদিনই আবার ফটকগুলো খুলে দিয়ে শহীদ মিনার জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়। খুলতে না খুলতেই আবার পুরনো অবস্থায় ফিরে যায় শহীদ মিনার এলাকায়।  


তবে শিক্ষার্থীদের ক্লাস ফাঁকি দিয়ে আড্ডা বন্ধে এবং শহীদ মিনারে অশ্লীলতা বন্ধে কঠোর অবস্থানে ছিলো পুলিশ। পুলিশের কড়াকড়ির মধ্যেই স্কুল, কলেজের শিক্ষার্থীরা তারা ক্লাস চলাকালিন সময় আড্ডা, কলেজের ড্রেস পরিহত শিক্ষাথীদেরকে শহীদ মিনারে ধুমপান করতে দেখা যায়। এছাড়া কয়েকজন শহীদ মিনারে বসেই প্রকাশ্যে অশ্লীল কর্মকান্ডে দেখা যায়। 


বুধবার (৪ সেপ্টম্বর) সকালে শহীদ মিনারে কলেজ ড্রেস পরিহিত দুই শিক্ষাথীকে অশ্লীলভাবে দেখতে পায়। শহীদ মিনারে দায়িত্বরত পুলিশের সদস্যরা তাদেরকে হাতে নাতে আটক করে। তাদেরকে জিজ্ঞাসা করা হয় কেন তারা এমন একটি জায়গায় কেনো এই ধরনের কাজে লিপ্ত হলো। 


অবশ্য তাদের পরিচয় এবং কোন কলেজের থেকে আসছে জানতে চাইলে তারা নারায়ণগঞ্জ কমার্স কলেজের শিক্ষার্থী বলে পরিচয় দেয়। বাবা মা পরিচয়ের জানতে চাইলে তারা কান্নাজরিত কন্ঠে বলে ভবিষ্যৎ এই ধরণের কাজ আর করবে না বলে। 


শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ চিন্তা করে তাদেরকে ছেড়ে দেয়া হয়। এছাড়া শ্যামপুর বহুমুখী হাই স্কুল এন্ড কলেজের দুই  শিক্ষার্থীকেও এমন অশ্লীল কর্মকান্ডে যুক্ত থাকার পরিচয় পায় পুলিশের সদস্যরা। তাদের কানে ধরিয়ে উঠবোস করিয়ে এবং পরিচয় রেখে এমন কাজ আর কখনো করবেনা মর্মে শপথ করার পর তাদের ছেড়ে দেয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।
 

এই বিভাগের আরো খবর