সোমবার   ২২ এপ্রিল ২০১৯   বৈশাখ ৮ ১৪২৬   ১৬ শা'বান ১৪৪০

যুগের চিন্তা বন্ধ হোক এটা আমরা চাইনা

প্রকাশিত: ৯ এপ্রিল ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) : নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রকাশিত বহুল প্রচারিত দৈনিক যুগের চিন্তার ডিক্লারেশন বাতিলের প্রতিবাদে নারায়ণগঞ্জের সর্বস্তরের মানুষ তীব্র নিন্দা প্রকাশ করেছেন। বিশিষ্টজনেরা বলছেন, যুগের চিন্তা পত্রিকাটি মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের চেতনা ধারণ করে। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশে জেলায় এমন একটি গণমাধ্যম পাওয়া খুবই কষ্টসাধ্য। 


নারায়ণগঞ্জে যে কোন ধরণের অপরাধের বিরুদ্ধে পত্রিকাটি সবসময় স্বোচ্চার। পত্রিকাটি বন্ধের সিদ্ধান্তটি তাই কোন ক্রমেই যোক্তিক সিদ্ধান্ত নয়। বর্তমান সরকার গণমাধ্যমকে স্বাধীনতা দিয়েছে। অথচ একটি কুচক্রী মহলের ষড়যন্ত্রে সরকারকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা চলছে। এসব ষড়যন্ত্র নারায়ণগঞ্জের মানুষ ঘৃণাভরে প্রত্যাখান করছে।


নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন জানান, যুগের চিন্তা বন্ধ হয়ে যাওয়ার তো কোনো কারণ দেখছিনা। আর এমন একটি পত্রিকা এভাবে বন্ধ হয়ে যাবে এটা কখনই আমরা চাইনা। পত্রিকা বন্ধের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।


নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি অ্যাডভোকেট মাহবুবুর রহমান মাসুম বলেন, যুগের চিন্তা বর্তমানে নারায়ণগঞ্জের পাঠকপ্রিয় ও জনপ্রিয় একটি পত্রিকা এতে কোনো সন্দেহ নেই। একজন গণমাধ্যমকর্মী হিসেবে আমি বলবো যুগের চিন্তাকে বন্ধ করার জন্য যে কোনো ধরণের পাঁয়তারার বিরুদ্ধে আমরা রাস্তায় নামবো। পত্রিকা বন্ধের সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। ধিক্কার জানাই। অবিলম্বে এধরণের ন্যাক্কারজনক সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার জন্য আহবান জানাই।


সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রফিউর রাব্বী বলেন, এ পত্রিকা বন্ধ হওয়ার মানে এটা নারায়ণগঞ্জের জন্য একটা অশনি সংকেত। কারণ যুগের চিন্তা সাহসের সাথে যা সত্য তাই তুলে ধরে। আর যারা এ সত্য দ্বারা যারা ক্ষতিগ্রস্থ হয় পত্রিকাটি বন্ধ হয়ে গেলে তাদেরকে উৎসাহ প্রদান করা হবে। আমরা জনপ্রিয় এই পত্রিকা বন্ধের সিদ্ধান্তের প্রতি তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। অবিলম্বে যুগের চিন্তা বন্ধের সকল সিদ্ধান্ত প্রত্যহার করে নেয়ার জোর দাবি জানাই।


বাংলাদেশ আওয়ীলীগের জাতীয় পরিষদের অন্যতম সদস্য ও জেলা আইনজীবী সমিতির এড.আনিসুর রহমান দিপু বলেন, নারায়ণগঞ্জে দৈনিক যুগের চিন্তা একটি জনপ্রিয় পত্রিকা। ভালো একটি পত্রিকা। কিন্তু পত্রিকাটি বন্ধ করে দেয়ার যে চেষ্টা চলছে তা আসলে ঠিক না। এসিদ্ধান্তের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই। যুগের চিন্তা বন্ধের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানাই।


নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান শামীম বলেছেন, যুগের চিন্তা একটি নির্ভরশীল পত্রিকা। আর এ পত্রিকা বন্ধ হওয়া কোনোভাবেই মেনে নেয়া যাবে না।


নারায়ণগঞ্জ সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন পন্টি বলেন, নারায়ণগঞ্জে যে কয়েকটি  পত্রিকা বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশে সচেষ্ট রয়েছে তার মধ্যে যুগের চিন্তা অন্যতম। সম্প্রতি জানতে পারলাম ছাপাখানা সংক্রান্ত ঝামেলার জন্য যুগের চিন্তার কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে। আমি যতটুকু জানি এ ধরণের সমস্যা নারায়ণগঞ্জে অন্য প্রায় সব পত্রিকার ক্ষেত্রেও রয়েছে। সেক্ষেত্রে একটি পত্রিকাকে চিঠি দেয়া এটা এক ধরণের ষড়যন্ত্র। নানান অজুহাতে যুগের চিন্তাকে বন্ধ করে দেয়ার যে পাঁয়তারা তা আমরা ইতোপূর্বেও দেখেছি।


নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ফজলুল হক রুমন রেজা বলেন, নারায়ণগঞ্জের যে কয়েকটি পত্রিকা বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশে নিয়োজিত রয়েছে সে সকল পত্রিকাগুলোর মধ্যে যুগের চিন্তা অন্যতম। আর এমন একটি পত্রিকা বন্ধ হয়ে যাওয়াটা অবশ্যই নারায়ণগঞ্জের জন্য সুখকর নয়।


নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সহসভাপতি অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান বলেন, যুগের চিন্তা নারায়ণগঞ্জে বহুল প্রচলিত একটি পত্রিকা। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশে যুগের চিন্তা সবসময় অটল। তাই এ পত্রিকাটি আমার খুব প্রিয়। আমি এর নিয়মিত পাঠত। কিন্তু কিছুদিন যাবৎ শুনতে পারছি পত্রিকাটি সরকার বন্ধ করে দেয়ার পাঁয়তারা চালাচ্ছে। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই।


নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মামুন মাহমুদ বলেন, যুগের চিন্তা পত্রিকাটি আমি পড়ি এবং পছন্দ করি। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশে যুগের চিন্তা সবসময়  সচেষ্ট। কিন্তু জানতে পারলাম পত্রিকাটি বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। কেন? যদি কারো কোনো সমস্যা বা কোনো কিছু বলার থাকে তাহলে সেটা আলোচনা করুক। সমাধান করুক। পছন্দ না হলে পত্রিকা বন্ধ করে দিবে।

মিছিলের গতি রোধ করে দিবে না এটা কোনো ভাবেই মেনে নেয়া যায় না। পত্রিকা বন্ধের সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। মানুষের বাকস্বাধীনতা হরণ করার পাশাপাশি সরকার এখন গণমাধ্যমের বাকস্বাধীনতাও হরণ করতে চাচ্ছে। এসব সিদ্ধান্ত ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করছি।


 নারায়ণগঞ্জ জেলা নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান বলেন, আমি যুগের চিন্তার নিয়মিত পাঠক। আমি মনে করি দৈনিক যুগের চিন্তা সারা বাংলাদেশের কাছে নারায়ণগঞ্জকে উপস্থাপন করে। কিন্তু নারায়ণগঞ্জে অনির্বাচনীয় সংসদ  যুগের চিন্তাকে বন্ধ করে দেয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে।

তারা নারায়ণগঞ্জের উন্নতি চায় না এবং যুগের চিন্তা যেহেতু নারায়ণগঞ্জবাসীর পক্ষের কথা বলে তাই তারা যুগের চিন্তার কন্ঠকে রোধ করতে চায়। পত্রিকা বন্ধের সিদ্ধান্ত ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করছি। অবিলম্বে এমন জঘণ্য সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে নেয়ার জোর দাবি জানাই।


জাতীয় শ্রমিক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রমিক উন্নয়ন ও কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক কাউসার আহমেদ পলাশ বলেন, সত্য ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশে যুগের চিন্তা অবিচল। এটা শুধু আমার মুখের কথা নয়। সময়ের সাথে সাথে যুগের চিন্তার যে পাঠকজনপ্রিয়তা তার মাধ্যমে বোঝা যায়। যুগের চিন্তা কোনো শক্তির কাছে মাথানত করে না। তারা সাধারণ মানুষের কথা বলে।

কিন্তু এ যুগের চিন্তা বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে। আমার মতে যুগের চিন্তা বন্ধ করে দেয়া মানে সাধারণ মানুষের কন্ঠকে বন্ধ করে দেয়া। নারায়ণগঞ্জের চোখ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হওয়া যুগের চিন্তাকে বন্ধ করার সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে নেয়ার জোর দাবি জানাই।


জেলা আওয়ামী লীগের য্্ুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, যুগের চিন্তা পাঠকের মন জয় করে নিয়েছে। একটি মহল যুগের চিন্তা বন্ধ করার পায়তারা দীর্ঘদিন যাবৎ করছিলো। তবে যত ধরণের ষড়যন্ত্র করাই হোক না কেন যুগের চিন্তা চলবেই। সর্বস্তরের মানুষ এ পত্রিকাকে গ্রহণ করেছে। এপত্রিকার সংবাদ মানুষের বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। যুগের চিন্তা বন্ধের সাথে যারা জড়িত তাদেরকে ধিক্কার জানাই। অবিলম্বে পত্রিকাটির সত্য প্রকাশের স্বাধীনতা পুনর্বহাল করা হোক।  


জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও জেলা যুবলীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদির বলেন, যুগের চিন্তা নারায়ণগঞ্জের সর্বশ্রেষ্ট পত্রিকা। এটি মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তির একটি পত্রিকা। এই পত্রিকা সত্য সংবাদ প্রকাশের কারণে একটি মহল পত্রিকাটির বিরুদ্ধে বিভিন্ন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ছিলো। পত্রিকাটি বন্ধ করতে তারা মরিয়া হয়েছিলো। এখনও ঠিক সেটিই চলছে। এসবের তীব্র নিন্দা  ও প্রতিবাদ জানাই।  অবিলম্বে যুগের চিন্তা পত্রিকাকে তার স্বাধীনতা ফিরিয়ে দেয়া হোক।


জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি আরজু রহমান ভ্ইূয়া বলেন, যুগের চিন্তা বন্ধের সিদ্ধান্ত সঠিক নয়। এপত্রিকাটি জনবান্ধব ও মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তির একটি পত্রিকা। ব্যাপক জনপ্রিয়তা ও গ্রহণযোগ্যতা অর্জন করেছে পত্রিকাটি। গণমানুষের সমস্যাগুলো সঠিকভাবে তুলে ধরতে পেরেছে এপত্রিকা। এ পত্রিকা বন্ধের যে কোন ষড়যন্ত্র মানুষ ঘৃণার চোখে দেখবে। যুগের চিন্তা পত্রিকাটি মানুষ মনে গেঁথে নিয়েছে। যুগের চিন্তাকে তার সত্য প্রকাশে কন্ঠরোধ করা হয়েছে। অবিলম্বে যুগের চিন্তার বাক স্বাধীনতা ফিরিয়ে দেয়া হোক।


মহানগর  আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জিএম আরাফাত বলেন, যুগের চিন্তা নারায়ণগঞ্জের একটি প্রতিবাদের কন্ঠস্বর। এই পত্রিকা বন্ধের সিদ্ধান্তটি সঠিক হতে পারেনা। নারায়ণগঞ্জে সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ, মাদকের এবং যে কোন অপরাধের বিরদ্ধে পত্রিকাটি সবসময় সোচ্ছার। শেখ হাসিনার সরকার সবসময় গণমাধ্যমকে স্বাধীনতা দিয়েছে।

যুগের চিন্তার পাঠক জনপ্রিয়তা সম্পর্কে এবং নৈতিকতার বিষয়টি সম্পর্কে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে একটি চক্র সরকারকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে। নারায়ণগঞ্জের সর্বস্তরের মানুষ সেটি সরকারকে অবশ্যই জানাবে। যুগের চিন্তা বন্ধের সিদ্ধান্ত মানুষকে মর্মাহত করেছে। অবিলম্বে যুগের চিন্তা বন্ধের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে নেয়া হোক।


মহানগর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আহম্মদ আলী রেজা উজ্জল বলেন, যুগের চিন্তা পত্রিকাটিকে সবাই গ্রহণ করেছে। তারাই গ্রহণ করেনি, যারা নারায়ণগঞ্জে সন্ত্রাস ও অপরাধের রাজত্ব কায়েম করতে চায়। পত্রিকাটির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র নতুন কিছু নয়, অনেক আগে থেকেই এই ষড়যন্ত্র চলে আসছিলো। যুগের চিন্তা মানুষের মনে আশ্রয় করে নিয়েছে। আমরা চাই যুগের চিন্তার মতো স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তির গণমাধ্যম নারায়ণগঞ্জের গণমাধ্যমের নেতৃত্ব দিক। যুগের চিন্তা পত্রিকা বন্ধের সিদ্ধান্তটি প্রত্যাহার করে নেয়া হোক। 


নারায়ণগঞ্জ কলেজের সাবেক ভিপি ও মানব সেবায় বিশেষ অবদানের জন্য এওয়ার্ড প্রাপ্ত মানবাধিকার কর্মী ভিপি পাবেল বলেছেন, যুগের চিন্তা বন্ধের প্রতিবাদে জনগণকে নিয়ে রাজপথে আন্দোলন কর্মসূচী দেওয়া হবে। আমিতো আশা করি যুগের চিন্তা আমাদের ঐতিহ্যবাহী নারায়ণগঞ্জের  অহংকার। এটাকে যারা ম্লান করার অপচেষ্টায় লিপ্ত আছেন, তাদেরতো বোঝা উচিত, ভুল যে ধরিয়ে দেয় সেইতো প্রকৃত বন্ধু। তোষামোদকারীরা জি হুজুর,জি হুজুর, যারা করে এবং কুবুদ্ধি দেয় তারা কখনো ভাল বন্ধু হতে পারে না। 


তিনি আরও বলেন, নারায়ণগঞ্জের সর্বাধিক প্রচারিত পত্রিকা ‘দৈনিক যুগের চিন্তা’র বিরুদ্ধে একটি মহল দীর্ঘদিন ধরে ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। পূর্বেও মিথ্যা মামলায় পত্রিকাটি সম্মুখীন হয়েছিল। পত্রিকার বিরুদ্ধে মামলাকারী বাদীর অডিও টেপের রেকডিং এর কথপ কথন প্রচার হওয়ার পর মামলাটির ভিত্তিহীন হয়ে পড়ে। যুগের চিন্তা বন্ধ হওয়া মানে নারায়ণগঞ্জের মানুষের বাক স্বাধীনতা খর্ব করা। মানুষের গণতন্ত্র  হত্যা করা।
 

এই বিভাগের আরো খবর