শুক্রবার   ১৮ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৩ ১৪২৬   ১৮ সফর ১৪৪১

যুগান্তরের প্রার্থী তালিকা ভিত্তিহীন : গণপূর্তমন্ত্রী

প্রকাশিত: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) : গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ হোসেন বলেছেন, যুগান্তর পত্রিকায় আওয়ামীলীগের চূড়ান্ত যে প্রার্থী তালিকা ছাপা হয়েছে তা কাল্পনিক এবং মিথ্যা। এখন পর্যন্ত কোন আসনে কাকে মনোনয়ন দেয়া হবে তার কোন তালিকাই তৈরি করা হয়নি। এই তালিকার কোন ভিত্তি নেই বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

মঙ্গলবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে সচিবালয়ে নিজদপ্তরে দেশের চলমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপ কালে মন্ত্রী বলেন, একেক সময় একেক পত্রিকা আওয়ালীলীগের প্রার্থীদের নামের তালিকা প্রকাশ করে বিভ্রান্তের সৃষ্টি করে।

তিনি বলেন, একমাত্র দলের প্রধান শেখ হাসিনা জানেন কোন আসনে কাকে তিনি প্রার্থী করবেন। এর বাহিরে কারো কোন অনুমান করারও কোন সুযোগ নেই। আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বোর্ড আছে তাদের কোন মিটিং এখনো হয়নি। অথচ পত্রিকা লিখে দিলো ১শ’৭৪ জন এমপি প্রার্থীর নাম।

তিনি বলেন, মাঠ পর্যায়ে এখনো জরিপ চলছে। বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার পাশাপাশি আওয়ামীলীগের নিজস্ব উইং খোঁজ খবর নিচ্ছে কোন প্রার্থীর কি অবস্থা। কাকে মনোনয়ন দিলে বের করে আনা সম্ভব হবে।

এবারের নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতা মূলক: হবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, এলাকায় যার জনপ্রিয়তা নেই,নানা কর্মকান্ডে যিনি বিতর্কিত এমন কোন ব্যক্তিকে এবার মনোনয়ন দেয়া হবেনা এমনটাই নিশ্চিত করেছেন দলীয় সভানেত্রী।

এর আগে কালেরকন্ঠে প্রকাশিত সম্ভাব্য এমপিদের তালিকা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

তিনি বলেছিলেন,কালেরকন্ঠের এই প্রতিবেদনটি সম্পূর্ণ ভূয়া। আমি কালের কন্ঠের সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলনকে জিজ্ঞাসা করেছিলাম এই রিপোর্টটির ব্যাপারে তিনি কোন উত্তর না দিয়ে নিরব থেকেছেন।

তিনি বলেছিলেন, আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বোর্ডের সদস্য হয়েও এখনো বলতে পারছিনা কারা আগামীতে মনোনয়ন পাবে। অথচ তারা নিজের মতো করে প্রার্থীদের মনোনয়ন দিয়ে দিলো। কালেরকন্ঠের তালিকায় এমন অনেকের নাম উঠে এসেছে যারা বিতর্কিত। যাদের কর্মকান্ডে দল তথা সরকার বিব্রত। এরকম ব্যাক্তিরা কখনই মনোনয়ন পাবেনা।

অথচ অনেক ভাল মানুষ আছেন যারা মনোনয়ন পেতে পারেন তাদের নাম তালিকায় দেয়া হয়নি। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন,মাঠ পর্যায়ে যারা গ্রহণযোগ্য, মানুষ যাদের ভালবাসে, যাদেরকে মনোনয়ন দিলে দল উপকৃত হবে এমন নেতাকেই মনোনয়ন দিবে আওয়ামলীগ। কোন বিতর্কিত ব্যাক্তিকে মনোনয়ন দেয়া হবেনা।

যুগান্তর তার রিপোর্টে উল্লেখ করেছে,এবারও নারায়ণগঞ্জ-১ আসন থেকে গোলাম দস্তগীর গাজী,নারায়ণগঞ্জ-২ আসন থেকে নজরুল ইসলাম বাবু এবং নারায়ণগঞ্জ-৪ আসন থেকে এ কে এম শামীম ওসমান দলীয় মনোনয়ন পাচ্ছেন।

এরআগে দৈনিক কালের কন্ঠ লিখেছিলো নজরুল ইসলাম বাবু এবং শামীম ওসমানের মনোনয়ন নিশ্চিত করা হয়েছে। এই তালিকা থেকে গোলাম দস্তগীর গাজীকে বাদ দেয়া হয়েছিলো।

এই বিভাগের আরো খবর