রোববার   ৩১ মে ২০২০   জ্যৈষ্ঠ ১৭ ১৪২৭   ০৮ শাওয়াল ১৪৪১

মহাসড়কে তল্লাশী চৌকি, পণ্যবাহী যানের জট

স্টাফ রিপোর্টার 

প্রকাশিত: ২১ মে ২০২০  

ঢাকার প্রবেশমুখ নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড এবং ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম ও সিলেটমুখি পথে মহাসড়কের সানারপাড় এলাকায় পুলিশের দুটি তল্লাশী চৌকিতে আজ পুলিশ বেশ কড়াকড়ি আরোপ করেছে।

 

আট লেনের এই মহাসড়টিতে উভয় দিকে একটি করে লেন খোলা রেখে প্রতিটি যানবাহন তল্লাশীর আওতায় এনেছে। জরুরী প্রয়োজন ছাড়া মানুষের ঢাকায় প্রবেশ ও বেড় হওয়া সীমিত করতে এ উদ্দ্যেগ নিয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

 

এদিকে এই দুটি তল্লাশী চৌকির কারনে আটকে পড়েছে কয়েক শত পন্যবাহী যানবাহন। এরমধ্যে সাইনবোর্ড এলাকায় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের তল্লাশি চৌকিতে ঢাকামুখি পণ্যবাহী যান আটকা পড়েছে সবচেয়ে বেশী। ঘন্টার পর ঘন্টা এসব যানবাহন আটকা পড়ে থাকতে দেখা গেছে। সকাল থেকে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (বিকেল সাড়ে তিনটা) ওই অবস্থা বিরাজ করছিল।

 

তবে ঢাকা থেকে বেড় হওয়া যানবাহন মহাসড়কের সানারপাড় তল্লাশী চৌকিতে সকালের দিকে আটকা পড়া যানবাহনের সংখ্যা দীর্ঘ হলেও দুপুরের পরে তা প্রায় স্বাভাবিক হয়ে আসে। রিক্সা, ইজিবাইক, অটোরক্সিা, প্রাইভেট কারসহ ব্যাক্তিগত যানবাহন চলাচলও সীমিত হয়ে আসে। সাধারন মানুষের পায়ে হেঁঠে পথ পাড়ি দেওয়াও একেবারে কমে এসেছে।


মহাসড়কে সানার পাড় এলাকায় তল্লাশী চৌকিতে দায়িত্বরত সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক জয়নাল আবেদিন বলেছেন, সরকারে অনুমোদন নেই এমন যানবাহন চলাচল করলে সেগুলি আমরা ফেরত পাঠাচ্ছি। পণ্যবাহী যান কিংবা অন্য কোন যানবাহনে অপ্রয়োজনে যেন মানুষ চলাচল না করতে পারে সেদিকে আমরা কঠোরভাবে নজর দিচ্ছি।

 

ঈদের ছুটিকে সামনে রেখে কিছু মানুষ ঢাকা ছাড়ার চেষ্টা করছে, সেগুলো আমরা নিয়ন্ত্রণ করার কাজ করছি। এই মহামারিতে সবাই ঝুঁকিতে আছে। তাই সকলকেই সরকারের নির্দেশনা মেনে চলতে হবে-বলেন তিনি।
 

এই বিভাগের আরো খবর