বুধবার   ২৭ মে ২০২০   জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৭   ০৪ শাওয়াল ১৪৪১

মশার প্রজননস্থল পাওয়া গেলে আইনগত ব্যবস্থা: তাজুল ইসলাম

যুগের চিন্তা ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৮ মে ২০২০  

এডিস মশা আমাদের আবাসিক-অনাবাসিক ভবনের মধ্যে জন্ম নেয়। বারবার বলার পরেও কারো বাড়িতে এডিস মশার প্রজননস্থল পাওয়া গেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রয়োজনে গ্রেফতার করা হবে বলে হুঁশিয়ারী দিয়েছেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।


আজ সোমবার রাজধানীর বারিধারা এলাকায় এডিস মশা নিধনে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের চিরুনি অভিযান পরিদর্শনকালে তিনি একথা জানান।


স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেন, ডেঙ্গু মশা আমাদের আবাসিক-অনাবাসিক ভবনের মধ্যে জন্ম নেয়। বিশেষ করে নির্মাণাধীন ভবন আমাদের জন্য বড় হুমকি। এজন্য ইতোমধ্যে আমরা সব মানুষকে বিভিন্ন ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে অবহিত করার চেষ্টা করেছি। গত কয়েকদিন থেকে এ এলাকায় সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা নিয়মিত এসে সবাইকে অনুরোধ করেছেন।

 

তিনি আরও বলেন, নির্মাণাধীন বিভিন্ন ভবনের বিভিন্ন জয়গায় যদি এরকম মশা প্রজননের ক্ষেত্র চিহ্নিত করা হয় তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রয়োজনে গ্রেফতার করা। অন্য যেসব মামলা দেওয়ার সুযোগ আছে সেগুলোও দেওয়া হবে।
 

মন্ত্রী আরও বলেন, এই ঘোষণা আমরা আগেই দিয়েছি। এর মধ্যে জরিমানা করা হয়েছে। আমাদের ম্যাজিস্ট্রেট আছে। আমরা আজ বলে যাচ্ছি যারা এখনো বারবার বলা সত্ত্বেও মশার প্রজননে উৎসাহিত করছেন এবং মানুষের জানমাল ও জীবন হুমকির সম্মুখীন করেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনের যতগুলো সুযোগ আছে সবগুলো ব্যবহার করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 
ডিএনসিসির মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, আমরা যতই অর্থদণ্ড দেই, কারাদণ্ড দেই, লাভ হচ্ছে না। এখন সময় এসেছে তাদের সামাজিকভাবে হেয়-প্রতিপন্ন করার। আমরা বারবার বলছি অতি উচ্চ ভবনে ৫২ শতাংশ এবং নির্মাণাধীন ভবন ২৫ শতাংশ এডিস মশার ঝুঁকির জন্য দায়ী।

 

এই বিভাগের আরো খবর