বৃহস্পতিবার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৪ ১৪২৬   ১৯ মুহররম ১৪৪১

বিয়ে বাড়িতে বরের বদলে ম্যাজিস্ট্রেট, রক্ষা পেল স্কুল ছাত্রী

প্রকাশিত: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) : আড়াইহাজারে উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের হস্তক্ষেপে বাল্য বিবাহ থেকে রক্ষা পেল ষষ্ঠ শ্রেণীর এক ছাত্রী (১৪)। সোমবার (৯ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে উপজেলার সাতগ্রাম ইউনিয়নের চারিগাঁও গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।


উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, চারিগাঁও গ্রামের ফিরোজ মিয়ার মেয়ে উর্মি আক্তারের সাথে একই উপজেলার মেরারটেক গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে মো.শাহাদাতের বিয়ের সিদ্ধান্ত নেয় দুই পরিবার। দুই পক্ষ বিয়ের সকল আয়োজনও সম্পন্ন করে।  


কিন্তু  সোমবার (৯ সেপ্টেম্বর) গোপন সূত্রে বাল্যবিবাহের খবর পেয়ে বর আসার আগেই  বিয়ে বাড়িতে পুলিশ নিয়ে উপস্থিত হোন উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উজ্জ্বল হোসেন। এদিকে ম্যাজিস্ট্রেটের অভিযানের খবর পেয়ে বর আর বিয়ে বাড়িতে  আসেনি।                      
পরে তিনি মেয়ের পরিবারকে বাল্যবিবাহের কুফল বুঝিয়ে বিয়ের আয়োজন বন্ধ করে দেন এবং প্রাপ্ত বয়স না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেয়ার জন্য অঙ্গিকারনামায় মেয়ের অভিভাবকের স্বাক্ষর গ্রহণ করে তাদের ছেড়ে দেন।


উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (ভূমি) উজ্জ্বল হোসেন জানান, গোপন সংবাদে জানতে পারি  যে ষষ্ঠ শ্রেণীর এক ছাত্রীকে বিয়ে দিয়ে দেয়া হচ্ছে। পরে ঘটনাস্থল উপস্থিত হয়ে পুলিশের সহায়তায় বিয়ে বন্ধ করে দেয়া হয় এবং মুচলেকা নিয়ে অভিভাবককে ছেড়ে দেয়া হয়।


তিনি আরো বলেন, বাল্যবিবাহ আইনত অপরাধ। বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে দেশে কঠোর আইন রয়েছে। কিন্তু আমরা তা মানি না। ফলে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ করা সম্ভব হচ্ছে না। আমাদের সচেতন হতে হবে। 
 

এই বিভাগের আরো খবর