শনিবার   ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৩ ১৪২৬   ০৯ রবিউস সানি ১৪৪১

বিশ্বনবী (সঃ) ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসা নিয়ে নানা আলোচনা ও সমালোচনা

প্রকাশিত: ১৩ নভেম্বর ২০১৯  

বন্দর (যুগের চিন্তা ২৪) : নানা কারনে বন্দরে ঐতিহ্যবাহী বিশ্বনবী (সঃ) ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসাটি সচেতন মহলে মাঝে আলোচনা ও সমালোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে পরিনত হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এমন কথা জানিয়েছে মাদ্রাসার সাধারন অভিভাবকসহ স্থানীয় এলাকাবাসী।

তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে আরো জানিয়েছে, মাদ্রাসার শিক্ষক শিক্ষিকার অনৈতিক কর্মকান্ড ঘটনা ফাঁস ও মাদ্রাসা পরিচলনা কমিটির বিরুদ্ধে লিফলেট বিতরণ, মাদ্রসার ভিতরে সুদের টাকা লেনদেন সহ একের পর এক অঘটনা জন্ম দিয়ে যাচ্ছে এ প্রতিষ্ঠানটি। 

এর রেশ কাটতে না কাটতে গত মঙ্গলবার দুপুরে মাদ্রাসার শিক্ষক হাসান ক্লাশে অংক পড়া না পারার অপরাধে ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী সুরাইয়াকে ৩’শ বার কান ধরে উঠবস করে নির্যাতন করে। এতে ওই শিক্ষার্থী ক্লাশ রুমে অসুস্থ্য হয়ে সঙ্গা হারিয়ে ফেলে। 

পরে স্থানীয় এলাকাবাসী আহত মাদ্রাসা ছাত্রীকে উদ্ধার করে স্থানীয় র্ফামেন্সিতে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করে। শিক্ষক কর্তৃক ক্ষুদে ছাত্রী নির্যাতনের ঘটনায়  সাধারন অভিভাবকসহ উক্ত এলাকাবাসীর মাঝে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করে। 

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এলাকাবাসী জানান, বিশ^নবী ইসলামিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটি অদক্ষতার কারনে এই প্রতিষ্ঠানের সুনাম দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে। মাদ্রাসার পরিচালনা কমিটির উদাসিনতার কারনে এই মাদ্রাসার লেখাপড়া মান কমে যাচ্ছে। মাদ্রাসার শিক্ষকরাও কসাই  ভূমিকা পালন করে চলছে। অভিভাবক প্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে রয়েছে নানা অভিযোগ।

শিক্ষার্থীকে নির্যাতনের ঘটনায় মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি সরদার মোঃ আবু তালেবের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, শিক্ষার্থী নির্যাতনের ঘটনায় আমাদের কাছে কেউ অভিযোগ করেনি। এলাকাবাসীর অভিযোগ আমরা আমলে নেইনি । আপনাদের কাছে কে অভিযোগ করেছে জানিনা। আপনারা যা পারেন তা করেন। 
 

এই বিভাগের আরো খবর