রোববার   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৬   ১০ রবিউস সানি ১৪৪১

পেছনের স্মৃতি ভুলে যেতে চাই, সামনে কঠিন পথ : আবুল কালাম

প্রকাশিত: ১১ নভেম্বর ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) : মহানগর বিএনপির ১৫১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটির পরিচিতি সভায় সভাপতি ও সাবেক সাংসদ আবুল কালাম বলেছেন, র্দীঘ সময় আমরা বিছিন্নভাবে রাজপথে অক্লান্ত পরিশ্রম ও আন্দোলনে অংশগ্রহণ করেছি। বর্তমান সরকারের কারণে আমাদের অনেক নেতাকর্মীরাই আজকে বিভিন্ন মামলায় জড়িত হয়ে আছে। তাঁরা কেউ কেউ পরিবার থেকে বিছিন্ন অবস্থায়ও রয়েছে। এদের সকলের জন্য আমাদের মহানগর বিএনপির পক্ষ থেকে সমবেদনা রইল। এ সময় আমাদের অনেকের মধ্যেই একে অপরের প্রতি ভুলবোঝাবুঝি ছিলো। এরপর অনেক কিছুই অতিক্রম করেছি আমরা। তাই আমরা পেছনের স্মৃতি আমরা ভুলে যেতে চাই, কারণ সামনে অনেক কঠিন পথ রয়েছে।  আমাদের প্রথম কাজ হলো শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান যেই বহুদলীয় গণতন্ত্র কায়েম করেছিলেন যার মাধ্যমে বাংলাদেশে গণতন্ত্র চালু হয়েছিলো সেটিকে ফিরিয়ে আনা।  

সোমবার (১১ নভেম্বর) বিকেলে নগরীর কালিবাজার এলাকায় মহানগর বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে পূর্ণাঙ্গ কমিটির পরিচিতি সভায় তিনি এসব কথা বলেন। পরিচিতি সভায় গুটিকয়েক সদস্য ব্যতিত পূর্ণাঙ্গ কমিটির প্রায় সকল সদস্যই উপস্থিত ছিলেন।   

আবুল কালাম পূর্ণাঙ্গ কমিটির নেতাদের উদ্দেশ্যে বলেন, র্দীঘ সংগ্রামের ফলেই কিন্তু আজকে আমরা এখানে এসেছি। আমরা যেন আর পেছনের দিকে না যাই। বিভিন্ন ব্যানারে নিজেদের ব্যক্তি প্রতিষ্ঠা করার জন্য আজকে আমরা কিন্ত জয়কে বলীয়ান করে যাচ্ছি। এটা থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে। ২০০৮ এর নির্বাচন হারের কারন কি? কারণ হচ্ছে আমাদের নেতাকর্মীদের মধ্যে যে ভুল বোঝাবুঝি সৃষ্টি হয়েছিলো তা থেকেই কিন্তু মূলত সেই নির্বাচনে আমাদের হারতে হয়েছিলো। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে একদিন না একদিন আমাদের নির্বাচন হবেই। এদেশের মাটিতে একদিন সুষ্ঠু নির্বাচন হবেই। কোননা কোন আঙ্গিকে একদিন আমদের মাঝে রাজনীতি ফেরত আসবেই। ফেরত আসবে আমাদের হারিয়ে যাওয়া গণতন্ত্র। কিন্তু বেগম খালেদা জিয়া ব্যাতিত এই গণতন্ত্র ফেরত আসার আর কোন উপায় নেই। তাকে মুক্ত করে আনলেই একটি সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে এই বাংলাদেশে।
 
কালাম আরো বলেন, মূল ¯্রােতের বাইরে গিয়ে কিন্তু কোন কাজ হবেনা। এতে শুধু দলের ক্ষতি হবে এবং বেগম খালেদা জিয়ার রাজনীতিতেও কোন অবদান থাকবেনা। আমাদেরকে সংশোধন হতে হবে এবং আমাদেরকে খেয়াল রাখতে হবে যে, আমরা যেন একে অপরের বিপক্ষে না যাই।

মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এড.আবু আল ইউসুফ খান টিপুর সঞ্চালনায় মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল, সহসভাপতি এ্যাড. জাকির হোসেন, আতাউর রহমান মুকুল, এড.রিয়াজুল ইসলাম আজাদ, এড. রফিক আহম্মেদ, যুগ্ম-সম্পাদক আব্দুস সবুর খান সেন্টু, হাজী ইসমাইল, সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কাউসার আশাসহ মহানগর বিএনপির পূর্ণাঙ্গ কমিটির অধিকাংশ সদস্যই উপস্থিত ছিলেন। 

এই বিভাগের আরো খবর