বৃহস্পতিবার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৪ ১৪২৬   ১৯ মুহররম ১৪৪১

নগরীতে বিভিন্ন দাবিতে বাসদের সমাবেশ ও মিছিল

প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

স্টাফ রিপোর্টার (যুগের চিন্তা ২৪) : কাশ্মীরী জনগণের আত্মনিয়ন্ত্রণ অধিকার ফিরিয়ে দেয়ার দাবিতে, আসামের নাগরিক তালিকা করে বাংলাদেশের উপর চাপ প্রয়োগের ষড়যন্ত্র এবং রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে সরকারের ব্যর্থতার প্রতিবাদে সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।


বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) বিকালে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলার উদ্যোগে প্রেস ক্লাবের সামনে এ সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

 
বাসদ’র জেলা সমন্বয়ক নিখিল দাসের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বাসদ জেলা ফোরামের সদস্য ও নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন ১৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর অসিত বরণ বিশ্বাস, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট জেলার সভাপতি আবু নাঈম খান বিপ্লব, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্টের জেলার সভাপতি সেলিম মাহমুদ, রি-রোলিং স্টিল মিলস শ্রমিক ফ্রন্ট জেলার সাধারণ সম্পাদক এস এম কাদির প্রমুখ। 


সমাবেশে বক্তারা বলেন, গত ৫ আগস্ট ভারতের রাষ্ট্রপতির অধ্যাদেশ জারি এবং পরবর্তীতে পার্লামেন্টের উচ্চ ও নি¤œ কক্ষে বিল পাশের মাধ্যমে সংবিধানের ৩৭০ ধারা ও ৩৫(ক) ধারা বাতিলের মাধ্যমে কাশ্মীরী জনগণের আত্মনিয়ন্ত্রণাধিকার হরণ করেছে। কাশ্মীরের সংখ্যাগুরু মুসলিম জনগোষ্ঠীকে সংখ্যালঘুতে পরিণত করা ও সম্পত্তির ব্যাপক হস্তান্তরের ভবিষ্যৎ নীলনক্সা নিয়ে অগ্রসর হলে তা সংশয়, সংঘাত ও উগ্রবাদী তৎপরতাকে ক্রমাগত বাড়িয়ে তুলবে।


ভারতের আসামের নাগরিক তালিকা প্রসঙ্গে বক্তারা বলেন, আসামে দীর্ঘদিনের আলী, কুলি, বঙ্গাল খেদাও শ্লোগানে সংগঠিত আন্দোলন হলেও বিজেপি সরকার তাকে নতুন সংকটের আবর্তে নিক্ষেপ করেছে। ১৯ লাখ মানুষকে রাষ্ট্রহীন করে বিজেপি এর বেশির ভাগ অংশকে বাংলাদেশে পুশব্যাক করার ষড়যন্ত্র করছে। সুতরাং বাংলাদেশ সরকারকে ভারতের প্রতি অনুগত না থেকে দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সতর্ক থাকা প্রয়োজন।


রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে তারা বলেন, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সরকার চরম ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। সরকারের চরম ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। সরকারের ভ্রান্ত পররাষ্ট্রনীতি এবং কূটনৈতিক ব্যর্থতার কারণে এই সমস্যা সমাধানে আন্তর্জাতিক কোন শক্তিকে পাশে পাচ্ছে না। সরকার দাবি কওে ভারত তাদেও বন্ধু রাষ্ট্র, চীনের সাথে সর্ম্পক ভালো, জাপানের বিনিয়োগ অনেক বেশি। কিন্তু আমরা দেখছি রোহিঙ্গা প্রশ্নে তাদের কেউই বাংলাদেশের পাশে নেই।


বক্তারা বলেন, একদিকে রোহিঙ্গা সংকট, অন্যদিকে আসামে নাগরিক তালিকা দিয়ে বাদ পড়াদের বাংলাদেশে পুশব্যাপক করার ষড়যন্ত্র, ব্যাংক ও আর্থিকখাতে ব্যাপক লুটপাট, জনগণের ট্যাক্সের টাকায় নির্মিত মহাসড়কে আবার জনগণের কাছ থেকে ট্যাক্স-টোল আদায়ের ঘোষণা, জাতীয় স্বার্থ বিসর্জন দিয়ে জ¦ালানি খাতে মডেল পিএসসি ২০১৯ প্রণয়নের মাধ্যমে দেশ গভীর সংকটে নিপতিত হয়েছে। 

 

এ সময় সরকারের চরম ফ্যাসিবাদী দুঃশাসনের বিরুদ্ধে বাম গণতান্ত্রিক বিকল্প রাজনৈতিক শক্তি গড়ে তোলার জন্য সর্বস্তরের জনগণের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান বাসদের নেতৃবৃন্দ।

এই বিভাগের আরো খবর