শনিবার   ২৪ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৮ ১৪২৬   ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

দেশি-বিদেশী চক্র নানা ষড়যন্ত্র করছে : মন্ত্রী গাজী 

প্রকাশিত: ১২ আগস্ট ২০১৯  

আশিকুর রহমান হান্নান (যুগের চিন্তা ২৪) : বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক বলেছেন, ‘দেশের জনগণ যাতে নির্বিঘ্নে ঈদ উৎসব পালন করতে পারে, সেজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আন্তরিক ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। এ জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা‌কে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

 

সোমবার (১২ আগষ্ট) সকাল সাড়ে ৮ টায় নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার রূপসী ইসলামীয়া দাখিল মাদরাসা মাঠে মুসলমান সম্প্রদায়ের অন্যতম বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আযহার নামাজ আদায় শেষে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে কুশল ও ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন। 

 

এ সময় মোনাজাতে দেশ ও জাতির কল্যান কামনা এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে দোয়া করা হয়।


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কঠোর হস্তে জঙ্গীদের দমন করেছেন বলেই দেশের মানুষ শান্তিতে ঈদ উৎসব পালন করতে পারছে উল্লেখ করে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক বলেন, “জঙ্গীরা দেশের শত্রু, ইসলামের শত্রু ও মুসলমানদের শত্রু, তথা বিশ্বমানবতার শত্রু।

 

এদেরকে দমন করার জন্য সকলকেই নিজ নিজ স্থান থেকে ভূমিকা রাখতে হবে। এ দায়িত্ব এককভাবে সরকার বা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর উপর ছেড়ে দিলে হবে না। এটি দেশের সকল মানুষের সমস্যা। কাজেই দেশের সকল নাগরিককে এগিয়ে আসতে হবে।” 


বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক আরো বলেন, “জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাস বর্তমানে একটি বৈশ্বিক সমস্যা। জঙ্গিবাদ নামক ভাইরাস দ্বারা বাংলাদেশও আক্রান্ত। এক শ্রেণির ভ্রান্ত ও পথভ্রষ্ট মুসলমান ইসলামের নাম ব্যবহার করে এ অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে। তাই দেশে জঙ্গীবাদ যাতে মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে না পারে, সেদিকে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে।”


মন্ত্রী আরো বলেন, ‘দেশে একের পর এক উন্নয়ন হচ্ছে। দেশ সর্ব ক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে। ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ বিশ্বসভায় উন্নত সদৃদ্ধ দেশে পরিনত হবে। সে লক্ষ্যেই বর্তমান সরকার কাজ করে যাচ্ছে। কিন্তু দেশ যখন উন্নত দেশের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে ঠিক তখনই দেশি-বিদেশী চক্র নানা ষড়যন্ত্র করছে। তারা দেশকে পিছিয়ে দিতে চায়।’

 

ডেঙ্গু নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়ে তি‌নি আরও বলেন, 'শুধু বাংলাদেশ নয়- সারা বিশ্বেই এখন ডেঙ্গু ছড়িয়ে পড়েছে। ডেঙ্গু প্রতিরোধে প্রয়োজন দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা। শুধু মশার মৌসুমেই নয়, বছরব্যাপী ডেঙ্গু প্রতিরোধে সংশ্লিষ্ট সংস্থাসহ সবাইকে নিজ নিজ জায়গা থেকে কাজ করতে হবে। সমন্বিত মশক নিধন ব্যবস্থাপনাই পারে ডেঙ্গুর হাত থেকে আমাদের রক্ষা করতে।'


এ সময় উপস্থিত ছিলেন, তারা‌বো পৌরসভা অাওয়ামীলী‌গের যুগ্মসাধারন সম্পাদক মোসা‌দ্দেক হো‌সেন পান্নু, তারা‌বো পৌরসভার কাউ‌ন্সিলর নজরুল ইসলাম ম‌ফিজ, তারা‌বো পৌরসভা যুবলী‌গের সহসভাপ‌তি শামীম মাহাবুব, অাওয়ামীলীগ নেতা নাঈম ভুঁইয়া, তারা‌বো পৌরসভা স্বেচ্ছা‌সেবক লী‌গের সাধারন সম্পাদক মে‌হেদী হাসান বা‌বেল, জাতীয় শ্র‌মিকলীগ তারা‌বো পৌরসভা অাঞ্চ‌লিক শাখার সাধারন সম্পাদক মোবারক হো‌সেন খান শা‌হিনসহ অনেকে।

এই বিভাগের আরো খবর